Skip to content

লোকসভা নির্বাচনের আগে আরো একবার বড় বিপাকে পড়তে চলেছেন অনুব্রত, নোটিশ গেল তৃণমূলের কাছে কমিশনার এর তরফ থেকে..

বীরভূমে বিভিন্ন ব্লকে দলীয় সভা করতে গিয়ে অনুব্রত মন্ডল বলেছিলেন আইনটা আমি ঠিক বুঝি। আর সেই আইনি পথে হেটে অনুব্রতর নকুলদানা দাওয়াইয়ের মন্তব্যের জন্য নির্বাচনের কমিশনের কাছে থেকে চিঠি গেল তৃণমূলের কাছে। কিছুদিন আগে বাংলা দাপুটে তৃণমূল নেতা বলেছিলেন নির্বাচন কমিশনার নকুলদানা খায়। আর তারপরে এই বিষয়টি নজরে আসে কমিশনের কাছে। এই চিঠিতে কমিশন জানিয়েছে,আপনাদের নেতা অনুব্রত মণ্ডলের মন্তব্য লজ্জাজনক। তাঁর এমন মন্তব্যে নির্বাচন কমিশনের মতো সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে। লোকসভা নির্বাচনের দিন ঘোষণার পর অনুব্রত নিজের এই মন্তব্যের জেরে আরো একবার বিতর্কে জড়ালেন।

লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধীদের নকুলদানা খাওয়ানোর কথা বলেন তিনি, আর এই মন্তব্যের জেরে তাকে প্রথম শো কজ করে নির্বাচন কমিশন জবাবে অনুব্রত বলেন নির্বাচন কমিশন ও নকুলদানা খায়। আপনাদের বলে রাখি নির্বাচনের দিন ঘোষণার পর থেকে মোট চারবার শোকজ করা হয়েছে তাকে এবার অনুব্রত কে সংযত হতে নির্দেশ দিয়েছে সরাসরি কমিশন। কমিশন এর দরুন সরাসরি তার দলীয় নেতৃত্ব কে চিঠি ও পাঠিয়েছে। এর আগে প্রতিবারই ভোটের মুখে নানাভাবে বিরোধীদের হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠে আসে অনুব্রত মণ্ডলের বিরুদ্ধে।এমনকি 2013 সালে পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে তৃণমূল কর্মীদের বিরোধীদের বাড়িতে বোমা মারার নির্দেশ দিয়েছিলেন তিনি এমনটাই অভিযোগ উঠেছিল তার বিরুদ্ধে।তবে এখানেই শেষ নয় তিনি আরও বলেছিলেন পুলিশ রুখে দাঁড়ালে পুলিশকেও বোমা মারতে পিছুপা হবেন না। তবে তার এমন মন্তব্যের জেরেই রাজ্য রাজনীতিতে সরগরম হয়ে উঠেছিল।আর গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিরোধী দলগুলো বাতাসা খাওয়াতে হবে বলে বিতর্কে জড়িয়ে ছিলেন তিনি।

আর একবার ফের লোকসভা নির্বাচনের মুখে বিতর্কে উঠে এলেন তিনি। তবে এবার পাঁচন, “গুরু বাতাস নয়” এবারের ভোটের দাওয়াই নকুলদানা।