শুরু হতে চলেছে ভোটার কার্ড সংশোধনের নতুন যাচাই পর্ব! না করে থাকলে অবশ্যই দেখে নিন কীভাবে করবেন…

নির্বাচন তথ্য যাচাই এভিপির কর্মসূচি শেষ হতেই এবার দেশজুড়ে ভোটার তালিকা সংশোধনের কাজ শুরু করতে চলেছে নির্বাচন কমিশন। যেমন কি আমরা জানি আগামী 18 ই নভেম্বর পর্যন্ত চলবে তথ্য যাচাই করার কর্মসূচি। আর তারপরই 25 শে নভেম্বর থেকে 24 শে ডিসেম্বর টানা এক মাস ধরে কাজ শুরু করা হবে ভোটার তালিকা সংশোধনের বলে প্রাপ্ত খবর থেকে জানতে পারা গেছে। আর এর মাধ্যমে এবার যারা 2019 সালের পয়লা জানুয়ারির মধ্যে 18 বছর হয়ে যাবে তারাও 6 নম্বর ফরম পূরণ করে ভোটার তালিকায় নতুন করে নাম তুলতে পারবেন।

আর সাথে সাথে চলবে ভোটার তালিকা সংশোধনেরও কাজও।এই বিষয় নিয়ে আগামী 21 জানুয়ারি চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে নির্বাচন কমিশনার এর তরফ থেকে। আর অন্যদিকে রাজ্যের এই নির্বাচন তথ্য যাচাই করার কর্মসূচিতে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত প্রায় সাড়ে তিন কোটি ভোটার সংক্রান্ত নথিভুক্ত করা হয়েছে। তবে সারাদেশের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গে এই কর্মসূচিকে নিয়ে বিশেষ তৎপরতা দেখা যাচ্ছে। যেমন কি আমরা জানি পশ্চিমবঙ্গে ভোটারদের সংখ্যা মোট 6 কোটি 97 লাখ 60 হাজার 868 জন।

তাই এই বিষয় নিয়ে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক আরিজ অফতার প্রতিটি জেলা শাসকের সঙ্গে একটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকও করেন। এই কাজে আপাতত এক নম্বরে রয়েছে কালিম্পং জেলা তারপর রয়েছে নদিয়া, উত্তর দিনাজপুর, কোচবিহার ও দুই চব্বিশ পরগণার নাম। এর আগে এতদিন ধরে ভোটারের নিজেরাই অনলাইনের মাধ্যমে নিজেদের তথ্য যাচাই করে থাকতেন। তবে এবার গ্রাম পঞ্চায়েত ও পৌরসভা এলাকায় ব্লক লেভেল অফিসারা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারদের কাছে তা করবেন বলে সূত্রের খবর।

বিএলও’রা বাড়ি যাওয়ার কাজ শুরু করতে চলেছে বলে খবর।আর এই বিষয় নিয়ে রাজ্যের মুখ্য নির্বাচন আধিকারিক অসিত জ্যোতি ভট্টাচার্য্য বলেছেন বিএল’ও রা মূলত দু’টি কাজ করবেন। যার মধ্যে প্রথমটি হবে অনলাইন তথ্য যাচাই করার জন্য রেজিস্ট্রেশন যারা করছেন তাদের তথ্যগুলির যাচাই করে দেখবেন তারা।এই কাজের জন্য কমিশনের তরফ থেকে “বিএল ওনেট” নামে একটি অ্যাপস তৈরি করা হয়েছে। এই অ্যাপস টিকে কাজে লাগাবেন বিএল’ও রা। আপাতত এই অ্যাপটি হুগলি জেলায় ব্যবহার করার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য।

এরপর দ্বিতীয় যে কাজটি করবেন তারা সেটি হবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে অফলাইনে নির্বাচন তথ্য যাচাই করার জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র বাড়ি বাড়ি যাওয়ার সময় নিজেরাই নিয়ে যাবেন তারা। কমিশন সূত্রে প্রাপ্ত খবর থেকে জানতে পারা গেছে প্রত্যেক ভোটারদের কাছেই যাওয়ার কথা রয়েছে এই বিএলওদের। আর এক্ষেত্রে যদি কোন পঞ্চায়েত ও পৌরসভা এলাকায় বিএলওরা এখনো পর্যন্ত না গিয়ে থাকে তাহলে বিডিও অফিসে খোঁজ নিতে বলা হচ্ছে অথবা আপনি কমিশনারের হেল্পলাইন নম্বর 1950 নম্বরে ফোন করেও এই বিষয়ে আরও অত্যাধিক তথ্য জানতে পারবেন।

Related Articles

Close