পোস্ট অফিসের এই নতুন স্কিমের দরুন এবার টাকা রাখলে হয়ে যাবে দ্বিগুণ জেনে নিন বিস্তারিত…

এবার পোস্ট অফিস নিয়ে এলো নতুন পরিষেবা এই পরিষেবার দারুন পোস্ট অফিসে টাকা রাখলে হয়ে যাবে সেই টাকা দ্বিগুণ। আর এক্ষেত্রে সময় লাগবে মাত্র 113 টি মাস।যেমন কী আমরা জানি এখনকার দিনে ব্যাঙ্কের সেভিংস খাতাতে টাকা সঞ্চয় করে রাখলে সে ক্ষেত্রে সুদ মিলে খুব কম। তবে ফিক্স ডিপোজিট এর ক্ষেত্রে সুদের পরিমাণ বেশি থাকলেও সে ক্ষেত্রে টাকা জমা দেবার সময় টুকু কিন্তু বেশ লম্বা থাকে।অন্যদিকে এখনকার দিনের স্বল্প রোজগার করা মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকেরা কিন্তু মিউচুয়াল ফান্ড বা শেয়ারবাজারে ইনভেসমেন্ট করতে সাহস পান না।

তবে সকলেই পোস্ট অফিস কে ভরসাযোগ্য বলে গ্রহণ করে তাই সেখানে টাকা রাখতে পিছুপা হন না। আর তাই সেই গ্রাহকদের কথা মাথায় রেখেই পোস্ট অফিস নানারকম স্কিম নিয়ে এসেছে বরাবর যার মধ্যে রয়েছে পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড, সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা, ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট, কিষান বিকাশ পত্র ইত্যাদি। যদিও এখন পিপিএফ ও সুকন্যা সমৃদ্ধি যোজনা দরুন বাৎসরিক হিসাবে সুদের হার 7.9 শতাংশ দেওয়া হচ্ছে।

তার সাথেই রয়েছে সিনিয়র সিটিজেন স্কিম এটা পাঁচ বছরে ভিত্তিতে সুদের হারের পরিমাণ রয়েছে 8.4 শতকরা। তবে এরকম এক পরিস্থিতির মধ্যে দাঁড়িয়ে এখন পোস্ট অফিসের তরফ থেকে ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কথা ভেবে তাদের জন্য এক অভাবনীয় সুযোগ নিয়ে হাজির হল পোস্ট অফিসের এই নতুন স্কিম টি।বলে রাখি প্রকৃতপক্ষে এই স্ক্রিমটি সরকারি সুরক্ষায় আশ্রয় যেমন প্রদান করে থাকে ঠিক তেমনি অন্যান্য বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো সাথে পাল্লা দিয়ে প্রতিযোগিতায় থাকছে।

এই যে আকর্ষণীয় স্ক্রীমটি রয়েছে সেটির নাম দেওয়া হয়েছে কিষান বিকাশ পত্র। এই স্ক্রিমটির দরুন ন্যূনতম 1000 টাকা খাতায় রেখেই কিন্তু শুরু করতে পারবেন তবে বিনিয়োগের সর্বোচ্চ সীমার কোনো বাধা নেই। এই কিষান বিকাশ পত্রে বর্তমান সুদ দেওয়া হচ্ছে 7.6 শতকরা যা এসবিআই 10 বছরের জন্য প্রদত্ত ফিক্স ডিপোজিট এর ওপর সুদের অংকের চাইতেও অনেক গুণ বেশি। আরো বলে রাখি এই কিষান বিকাশ পত্রটির আপনি যেকোন নিকটবর্তী পোস্ট অফিসের বিভাগীয় দপ্তর থেকে এই সুবিধা লাভ উঠাতে পারবেন।

যেকোনো প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি নিজের সন্তান বা সন্ততিদের জন্য এই যোজনা করাতে পারেন।শুধু তাই নয় এই ক্রিমটির দরুন আপনি নমিনি বিকল্প প্রদান করতে পারেন। এক্ষেত্রে লাগবে শংসাপত্রে একে অপরের হস্তান্তরযোগ্য। আরো বলে রাখি এই স্কিমের দরুন আমানতকারীরা প্রতিবছর 1000 টাকা বিনিয়োগ করলে তার ডবল ফেরত পাবেন, আর জুলাই মাসের প্রথম দিন থেকেই এই স্ক্রিমটির সুবিধা পেতে পারবেন বিনিয়োগকারীরা।