ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য নতুন ভাবনা রাজ্য সরকারের, শুরু হবে বিশেষ ধরনের ক্লাস

রাজ্যে করোনা পরিস্থিতিকে সামলানোর জন্য চালু করা হয়েছে লকডাউন। এই লকডাউনের জন্য বন্ধ হয়েছে স্কুল কলেজ সহ বিভিন্ন যানবাহন। বাতিল করা হয়েছে মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। শিক্ষা ব্যবস্থা সম্পূর্ণ বন্ধ হওয়ার ফলে ছাত্র-ছাত্রীর ভবিষ্যত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। রাজ্যের সমস্ত ছাত্র ছাত্রীর ভবিষ্যৎ জীবন যাতে উজ্জ্বল হয় সেই জন্য রাজ্য সরকার পঠন-পাঠনের এক অভিনব পদ্ধতির কথা চিন্তা করছে।

এই বছরের মাধ্যমিক এবং উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। করোনার শুরু থেকেই সমস্ত স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখা হয়েছে। অনলাইনে ক্লাস চালানো হচ্ছে। অনলাইনে ক্লাস চালানো হলেও বেশ কিছু গ্রাম অঞ্চলের ছাত্রছাত্রীরা সেই ক্লাসে অংশগ্রহণ করতে পারছে না। ‌করোনার জন্য কার্যত শিক্ষাব্যবস্থা একদমই ভেঙে পড়েছে। এবার শিক্ষাব্যবস্থাকে সচল করার জন্য রাজ্য সরকার এক অভিনব পদ্ধতি গ্রহণ করবে বলে জানা গিয়েছে।

মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা এইবারের জন্য বন্ধ রাখা হলেও পঠন-পাঠন চালানোর জন্য রাজ্য সরকার দূরশিক্ষা মাধ্যমের সাহায্য নিতে চলেছে। গতবারই রাজ্য সরকার ছাত্রছাত্রীদের পড়াশোনা করানোর জন্য বিভিন্ন শিক্ষকদের টিভি স্টুডিওতে শিক্ষকদের ডেকে ক্লাসের ব্যবস্থা করেছিল। আর এই ধরনের পঠন-পাঠনের মাধ্যমে বহু ছাত্র-ছাত্রী উপকৃত হয়েছিল। এবারেও একই পদ্ধতি অবলম্বন করতে চাইছে রাজ্য সরকার।

দূরশিক্ষার মাধ্যমে পঠন-পাঠন চালানোর পদ্ধতি নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা শুরু হয়েছে। তবে এই বিষয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। এবার দেখা যাক রাজ্য সরকার পরবর্তী কী পদক্ষেপ নেয়।