মহম্মদ শামি পেলেন ডবল খুশি ভারতীয় দল জিতল সিরিজ, বাড়িতে জন্মাল কন্যা সন্তান…

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মহম্মদ শামি দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছেন। এই প্রথমবার কোন দল নিউজিল্যান্ডের মাটিতে নিউজিল্যান্ডের 5-0 ব্যবধানে হারিয়েছে। সেইসঙ্গেই এই মাসে মহম্মদ শামির জন্য আরেকটি খুশির খবর এলো। খুশির খবরটি হল,মহম্মদ শামির বাড়িতে এক শিশু কন্যা জন্মগ্রহণ করেছে। মোহাম্মদ শামি এই দুটি খুশিকে তাদের তার সমর্থকদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন।

ভারতের পেসার বলার তার নিজের টুইটার হ্যান্ডেল একটি শিশু কন্যার ছবি পোস্ট করে লিখেছেন,” আমার পরিবারে আরো একটি কন্যা সন্তানের জন্ম হয়েছে। মিষ্টি রাজকুমারী তোমাকে জন্মের শুভেচ্ছা থাকলো। সকলের ভালোবাসা এবং আদরে তুমি বড় হয়ে ওঠো। পৃথিবীতে তোমাকে স্বাগত এবং ভাইয়ের পরিবারকে শুভেচ্ছা।” তবে আপনাদের জানিয়ে দি, এই কন্যা সন্তানটি মহম্মদ শামির ভাইয়ের মেয়ে। অর্থাৎ মহম্মদ শামি সম্পর্কে কাকা হলেন। আর তিনি কাকা হওয়াই খুবই খুশি। অপরদিকে তার ব্যক্তিগত জীবনের দিকে তাকালে বলা যায় অনেক সমস্যা রয়েছে।

শামি ও তার স্ত্রী হাসিন জাহান এর সঙ্গে মনোমালিন্য চলছে। একথা আমরা প্রায় অনেকেই জানি। হাসিন জাহান তার স্বামীর উপর ম্যাচ ফিক্সিং এবং অন্য মহিলাদের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ এনেছিলেন। শুধু তাই নয় হাসিন জাহান শামির বড় ভাইয়ের উপর ধর্ষণের অভিযোগ এনেছিল। এই অভিযোগের ভিত্তিতে তার বড় ভাইকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নিউজিল্যান্ড সফরে ভারত কে জেতানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছেন ডানহাতি পেসার মহম্মদ শামি।

তিনি তিনটি ম্যাচে দুটি উইকেট নিয়েছেন। কিন্তু হ্যামিল্টনে তৃতীয় টি-টোয়েন্টি ম্যাচে শেষ ওভারে বল করতে এসে পুরো খেলা নিজেদের দিকে ঘুরিয়ে নেন। ওই ওভারে দুটি গুরুত্বপূর্ণ উইকেট উইলিয়ামসন এবং রস টেলরকে আউট করে ম্যাচ টাই করে দেন তিনি। এরপর ম্যাচ সুপার ওভারে গিয়ে পৌঁছায় এবং তাতে রোহিত শর্মা পরপর দুটি বলে দুটি ছক্কা মেরে জিতিয়ে দেন। এই ম্যাচের ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ রোহিত শর্মা হন। যদিও শেষে রহিত শর্মা বলেন, এই ম্যাচ জেতার আসল হিরো শামি।

নিউজিল্যান্ড সফরে যে মোহাম্মদ সামি দুরন্ত পারফরমেন্স করেছেন এমনটাও কিন্তু নয়, তিনি কয়েক বছর ধরে লাগাতার ভারতের দুরন্ত পারফরম্যান্স করে আসছেন। তিনি টেস্ট ক্রিকেটে 12 মাসে 7 টি টেস্ট ম্যাচ খেলে 31 টি উইকেট নেন। অন্যদিকে ওয়ানডে ফরমেটে 18 ম্যাচ খেলে 37 টি উইকেট নেন তিনি। বিশ্বকাপেও তিনি দুরন্ত পারফরম্যান্স করেছেন ভারতের হয়ে। বিশ্বকাপে তিনি মোট চারটি ম্যাচে 14 টি উইকেট নিয়েছেন, যার মধ্যে আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে তিনি একটি হ্যাটট্রিক ও করেছিলেন।