হাতে সময় রয়েছে আর মাত্র একটা দিন যোগাযোগ না হলে ল্যান্ডার বিক্রম কে হারাতে পারে ইসরো, বিপদের মেঘ ঘনাচ্ছে ইসরো-তে

হারিয়ে যাওয়া চন্দ্রযান 2 এর ল্যান্ডার বিক্রমকে খুঁজে বের করার প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে নাসা। এর সাথে সাথে সমস্ত ভারতবাসী প্রত্যাশাও রেখেছিল যে খুঁজে দেবে। কিন্তু চাঁদের মাটিতে যেখানে চন্দ্রযান-2 এর ল্যান্ডার বিক্রমের অবতরণের কথা ছিল সেই জায়গাটির ছবি তুলে নিয়ে এলো নাসার মহাকাশযান। বৃহস্পতিবার নাসার উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন, চন্দ্রপৃষ্ঠে যে ছবি তোলা হয়েছে তাতে সফট ল্যাণ্ডিং সফল হলে বিক্রম এর খোঁজ পাওয়া যেত।

নাসা লুনার রিকনাসান্স অরবিটার বা এলআরও মহাকাশযান এই দুটি ছবি তোলে। ওই আধিকারিক জানিয়েছেন 17 সেপ্টেম্বর ছবি তোলা হয়। ওই মহাকাশযানটি যে সময় ছবি তোলে সেই সময় চন্দ্রপৃষ্ঠে ঘন অন্ধকার। ফলে ল্যান্ডার বিক্রম ঠিক কোথায় রয়েছে তার সঠিক চিত্র পাওয়া যায়নি এখনো। এই এলআরও মিশনের ডেপুটি সায়েন্টিস্ট জন কেলার পিটিআই কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই তথ্য প্রকাশ করেছেন।

তবে ওই অরবিটার যে দুটি ছবি ইসরো কে পাঠিয়েছে সেই ছবি দুটি খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে। 21 সেপ্টেম্বরে মধ্যে ল্যান্ড আর বিক্রমের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন নাসা। এবং এরপরেই অর্থাৎ 21 সেপ্টেম্বরে পর থেকেই ওই এলাকায় ঘন অন্ধকারে চলে যাবে ফলে ল্যান্ডার বিক্রমকে এরপর থেকে খুঁজে পাওয়া প্রায় অসম্ভব হয়ে যাবে। কারন, 21 সেপ্টেম্বরের পর থেকে চাঁদের দক্ষিণ প্রান্ত অর্থাৎ যেখানে বিক্রম রয়েছে সেখানে সূর্যাস্ত হবে।

তাই সূর্যের আলোর অভাবে সেখানে যেমন ঘন অন্ধকার হবে তেমনি শীত পড়েছে। এর সঙ্গে 200 ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা কম হবে। ঠিক এমন একটি পরিস্থিতিতে নিস্তেজ বিক্রমকে জাগানো খুব একটা সহজ হবে বলে মনে করছেন না বিজ্ঞানীরা। নাসার এলআরও টিমের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগের ছবিগুলোর সঙ্গে নতুন ছবিগুলির তুলনা করে দেখা হচ্ছে। তবে নাসার বিজ্ঞানীদের আশা ওই ছায়াঘেরা জায়গাটির মধ্যে কোথাও না কোথাও রয়েছে ল্যান্ডার বিক্রম। না হলে যেখানে বিক্রম ল্যান্ড করেছে সে খানের ছবি তুলেনি নাসার অর্বিটার।

Related Articles

Close