নাসার হাতে উঠে এল এক চাঞ্চল্যকর প্রমাণ, আগামী দিনে সমুদ্র গর্ভেই হারিয়ে যেতে চলেছে গোটা বিশ্ব..

তবে কি এবার অবশেষে ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে বিশ্ব? অনেকের মনে এই প্রশ্ন প্রায়ই জেগেই থাকে। তাই তাদের জন্য আজকের এই খবরটি গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে কারণ এবার এমনটাই সতর্কবার্তা দেওয়া হচ্ছে নাসার  তরফ থেকেও।নাসার এক বিজ্ঞানী জানিয়েছেন তাদের কাছে এখন এমন এক তথ্য এখন উঠে এসেছে যেখানে তারা নিশ্চিত যে বিশ্বে যেভাবে সমুদ্রের জলস্তর দ্রুত বেড়ে চলছে আগামী 100 বছরের মধ্যে সমুদ্রের জলের স্তর অন্তত এক মিটার বাড়বেই।

তবে যে হারে বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে জলস্তর বাড়ার আশঙ্কা করেছিল বিজ্ঞানীরা তার চেয়ে অনেক দ্রুত হারেই বেড়ে চলেছে সমুদ্রের জলের স্তর। আরো বলে রাখি এই জলস্তরকে কোনরকম ভাবে বাধা দেওয়া বা আটকানো সম্ভব নয়। বিজ্ঞানীরা মনে করছেন ডুবে যাবে প্রশান্ত, ভারত মহাসাগরের অসংখ্য দ্বীপ আগামী দিনে, আর সমুদ্র উপকূলবর্তী অবস্থিত হাজার হাজার শহর ও। এমনকি অস্তিত্ব থাকবে না ফ্লোরিডার মত অনেক জনপদের। অচিরেই যার ফল ভোগ করতে হবে 15 কোটি মানুষকে।

নাসার সমুদ্র জল নিয়ে গবেষণাকারী দলের প্রধান স্টিভ নেরেম এই বিষয় নিয়ে জানিয়েছেন, তাদের সম্প্রতি গবেষণার ফলে যে তথ্য তাদের হাতে উঠে এসেছে সেখানে জানা যাচ্ছে আগামী 100 বছরের মধ্যে জলস্তর এক মিটার তো বাড়বেই। আর যার ফল ভোগ করতে হবে গোটা বিশ্ববাসীকে।শুধু তাই নয় নাসার তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে সম্প্রতি আধুনিক যন্ত্রের সাহায্যে সমুদ্রের জলস্তর মাপা হয়ে থাকে অনবরত আর এখন নাসার হাতে যে তথ্য উঠে এসেছে সেখানে জানা যাচ্ছে জল যেমন বাড়ছে সমুদ্রের তেমন জলে ভাসমান বরফের পাহাড়ের উচ্চতাও দিন দিন বেড়েছে।

আর নাসার এই নতুন ধরনের যন্ত্রের সাহায্যে যে পরীক্ষাটি চালানো হয়েছে সেটির ফল নির্দিষ্ট শুধু নয়, একেবারে নির্ভুল বলে দাবি করেছেন সেখানকার গবেষকরা। নাসার বিজ্ঞানীদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে বিশ্ব উষ্ণায়নের জেরে সমুদ্রের জলের তাপমাত্রা দ্রুত বাড়ছে,আর যার জেরে আন্টার্টিকা গ্রিনল্যান্ডে বরফে স্তর শুধু উপরিভাগ থেকেই নয় জলের নিচ থেকেও গলতে শুরু করেছে।আর বরফ গলার ওজন কমার ফলে বরফে পাহাড় ভেসে উঠছে বাড়ছে উচ্চতা। শুধু তাই নয় গবেষকরা তবে বেশি চিন্তিত রয়েছে গ্রিনল্যান্ডে বরফের স্তর নিয়ে।কারণ প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী জানতে পারা গেছে গত এক দশকে প্রতিবছর গ্রিনল্যান্ডে 303 গিগাটন বরফ গলছে। আর আটলান্টিকে বরফ গলছে প্রতিবছর 110 গিগাটন। এই বিষয় নিয়ে সমুদ্র বিশেষজ্ঞ জশ উইলস বলছেন আমরা যতটা অনুমান করেছিলাম গত কয়েক বছরে তার চেয়ে অনেক তাড়াতাড়ি বরফ গলছে।এর সাথে সাথে তারা আরো জানান যে আগামী কুড়ি বছরে আরও দ্রুত হারে বরফের স্তর গলার আশঙ্কা রয়েছে। তবে কেন এত দ্রুত হারে গলছে বরফ বাড়ছে জলস্তর কিছুটা হলেও এখনো রহস্য হয়ে রয়েছে এই গবেষকদের একাংশ।

The India Desk

Indian famous bengali portal, covers the breaking news, trending news, and many more. Email: theindianews.org@gmail.com

Related Articles

Close