বিশ্বের তাবড় তাবড় নেতাদের পেছনে ফেলে আরো একবার জনপ্রিয়তার দিক থেকে শীর্ষে নাম লেখালেন নরেন্দ্র মোদী

এই কথাটির সঙ্গে নিঃসন্দেহে সকলেই একমত হবেন যে, ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির জনপ্রিয়তার কাছে সহজে হেরে যেতে হবে যে কোন প্রধানমন্ত্রী জনপ্রিয়তাকে। ডিসেম্বরের শুরুতে আমেরিকার ডেন্টা ইন্টেলিজেন্স ফার্ম মর্নিং কনসালটের সমীক্ষায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় নেতা হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। নিঃসন্দেহে এটি ভারতের জন্য একটি গর্বের বিষয়। জনপ্রিয়তার দিক থেকে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন এবং বৃটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনকেও পেছনে ফেলে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অ্যাপ্রভাল রেটিং বিশ্বের ১০ জন প্রভাবশালী নেতাদের থেকে সবথেকে বেশি। সমীক্ষা অনুযায়ী, ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী নেতাদের থেকে অনেক ভালো কাজ করেছেন। এই প্রধানমন্ত্রীর মতো এতোটা অ্যাক্টিভ অন্য কোন প্রধানমন্ত্রীকে দেখতে পাওয়া যায় না। শুধুমাত্র দেশের জন্য নয় আশে পাশের প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে সখ্যতামূলক ব্যবহার করার ক্ষেত্রেও নরেন্দ্র মোদী অনেকটাই এগিয়ে রয়েছেন।

এই তালিকায় দ্বিতীয় নম্বরে রয়েছেন মেস্কিকো রাষ্ট্রপতি মেক্সিকোর রাষ্ট্রপতি অ্যান্দ্রেজ ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাডোর। ওনার অ্যাপ্রুভাল রেটিং ৬৪, তৃতীয় নম্বরে রয়েছেন ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিয়ো দ্রাগি। ওনার রেটিং ৬৩। চতুর্থ স্থানে রয়েছেন জার্মানির প্রাক্তন চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মর্কেল। পঞ্চম স্থানে রয়েছেন আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেন। ওনার রেটিং ৪৮।

করোনাকালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রেটিং ছিল সব থেকে বেশি, ৮৪ শতাংশ। এই বছর জুন মাসে অ্যাপ্রভাল রেটিংয়ের তুলনায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বর্তমান রেটিং অনেকাংশে বেড়েছে। গত জুন মাসে প্রধান মন্ত্রীর অ্যাপ্রভাল রেটিং ছিল ৬৬। শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির অ্যাপ্রভাল রেটিং বেড়েছে তা নয়, ডিস অ্যাপ্রভাল রেটিংও কমেছে।

এই তালিকা প্রকাশের পর নিঃসন্দেহে আরও একবার প্রমাণিত হয়ে যায় ভারতবর্ষের সবথেকে প্রভাবশালী প্রধানমন্ত্রী হলেন নরেন্দ্র মোদি। এই জনপ্রিয়তার নেপথ্যে রয়েছে মহামারী, প্রতিবেশী দেশের আক্রমণ, প্রতিবেশী দেশের সঙ্গে সখ্যতা স্থাপন।