পাকিস্তানের হাত থেকে বেলুচিস্থান স্বাধীন হলেই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিশাল মূর্তি নির্মাণ করবো মন্তব্য বালোচ নেত্রী নায়েলা কাদরীর..

জম্মু-কাশ্মীরে 370 ধারা তুলে নেওয়ার পর শুধু ভারতীয়রায় খুশি হয়েছেন তাই নয় এই ধারা তুলে নেওয়ার পর পাকিস্তান অধিকৃত বালুচিস্তানের লোকেরাও আনন্দ উৎসব করছেন। এ ধারা তুলে দেওয়ায় তারা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়েছে। বালুচিস্তানের লোকেরা যে খুশি আছেন তার প্রমান অনেক দিক থেকে পাওয়া যাচ্ছে। তার মধ্যে, মহিলা বালুচ নেতা নায়েরা কাদরী বালুচিস্তানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মূর্তি নির্মাণ করার ঘোষণা করে দিয়েছেন।

যদিও এর আগে একবার নায়েলা কাদরী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মূর্তি স্বাধীন বালুচিস্তানে নির্মাণ করার কথা ঘোষণা করেছিলেন। তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে হিরোর দরজা দেন। এবং তিনি আরও বলেন পাকিস্তান চীনের সাথে মিলিত হয়ে বালুচ বংশকে শেষ করতে চায়। নায়েলা কাদরী বলেছেন, যদি বালুচিস্তান স্বাধীন হয়ে যায় তাহলে আমরা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মূর্তি স্থাপন করবো। তিনি বলেন বালুচিস্তান নিজের স্বাধীনতার জন্য দীর্ঘদিন ধরে লড়াই করে আসছে।

মোদীজি যে সাহস নিয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা অন্য কোন নেতা কোন দিন পরত না। পাকিস্তান গত 70 বছর ধরে আমাদের অত্যাচার করে আসছে, মোদীজি আমাদের সেই অত্যাচার থেকে রক্ষা দিয়েছে। মোদীজি আমাদের হিরো, মোদীজি আমাদের ভাই। নায়েরা স্পষ্ট ভাবে বলেন যে, বালুচিস্তান কে স্বাধীন করতে ভারত আমাদের সাথ দিলে, বালুচিস্তানের দুরগামী লাভ হবে। প্রথম লাভ হল, ভারতের নিজের সংস্কৃতি অনুযায়ী সাহায্যকারীর পরম্পরা পালন করবে। আর দ্বিতীয়ত, বালুচিস্তান ভারতকে জ্বালানিতে সাহায্য করবে। বালুচ নেত্রী বলেন আমরা বালুচেরা 1 বাটি জলের বদলে শত বছর ধরে তার  আনুগত্য থাকি, আমরা প্রাণ দিয়ে এখনো অব্দি মাতা হিঙলাজের মন্দিরকে সংরক্ষিত করেছি। এমনকি মধ্য এশিয়ার সোজা রাস্তা ভারত কে স্বাধীন বালুচিস্তানে পাবে।

তিনি আরো জানান, হিঙলাজ মাতার দর্শন এর জন্য কোন ভারতীয় কে ভিসা লাগবে না। এর আগে জানিয়ে দি, মোদিজী 15 আগস্ট ভাষণ দেওয়ার সময় বালুচিস্তানের কথা উল্লেখ করেছিলেন। এরপর থেকেই বালুচিস্তান স্বাধীনের জন্য তীব্র লড়াই শুরু হয়। ওখানকার বালুচি নেতা এবং জনগণ বলেছেন মোদির আমাদেরকে জোর দিয়েছেন। এবং একটা দিন অবশ্যই আসবে যেদিন পাকিস্তানের হাত থেকে বালুচিস্তান স্বাধীন হয়ে যাবে। আর যেদিন বালুচিস্তান স্বাধীন হবে সেই দিন এই ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির মূর্তি স্থাপন করা হবে এখানে।

Related Articles

Close