স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর ফোনের পরই রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠিকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হল…

মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বেরিয়ে আসছে এক ব্রেকিং নিউজ আপডেট। কাল রাত্রি থেকেই রাজনৈতিক মহল পুরো গরম রয়েছে। এখন চারিদিক প্রতিটি নিউজ চ্যানেলে শুধু সিবিআই সাথে পুলিশের গতকাল রাতে যে ঘটনা ঘটেছে , তারই চর্চা চলছে। খবর সূত্রে জানা যাচ্ছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং এর পরেই রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীকে দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় হওয়া রাজ্যের কলকাতা পুলিশ বনাম সিবিআই তুমুল লড়াই এর ঘটনাকে ঘিরে সোমবার সকালে রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী ফোন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং । ফোনে কালকের ঘটনার কারণে রাজ্যপালের কাছে উষ্মা প্রকাশ করেছেন।রাজনাথ সিং এর কাছে রাজ্যপাল এ ঘটনাকে অদ্ভুত পূর্ণ ও অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক বলে ফোনে উল্লেখ করেছেন ।

তিনি সিবিআইকে ঘেরাও ধস্তাধস্তি ও বন্দী করার তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি এও জানিয়েছেন, কলকাতার সম্পূর্ণ পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক । শুধু তাই নয়, রাজ্যপাল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছেন, ডিজিপি ও মুখ্য সচিবের সাথে তার কথা হয়েছে এবং পরিস্থিতির উপর কড়া নজর রাখছেন। ফোনে কথা শেষ হলেই , রাজ্যপাল দ্বারা সেন্ট্রাল আইবির এডিশনাল ডাইরেক্টরকে ডেকে পাঠানো হয়।বিগত দিনে , ডিএসপি উপস্থিতিতে 40 জন সিবিআই তদন্ত কারী অফিসার সিপির বাড়িতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রবেশ করতে চাইলে, কলকাতা পুলিশ তাতে বাধা দেয় । শুধু বাধাই নয়, রাজ্য পুলিশ সিবিআই তদন্তকারী দলকে ধস্তাধস্তি করে এবং জোর করে কাছের শেক্সপিয়ার থানায় নিয়ে যায়। এবং থানাতেই সিবিআই তদন্তকারী দলকে প্রায় দেড় ঘন্টার অধিক আটক করে রাখা হয়। তারপর সিবিআই তদন্ত কারী দলকে অনেক রাতে থানা থেকে ছাড়া হয়।

গতকালের এই সমস্ত ঘটনার রিপোর্ট জমা দেওয়া হয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে। এছাড়াও জানা গেছে, কলকাতায় সিবিআই অফিসার দের নিরাপত্তা ব্যাহত হচ্ছে তাদেরকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে এমনটাই অভিযোগ করেছে সিবিআই। অভিযোগের ভিত্তিতে রাজ্যের তিনটি আইপিএস এর বিরুদ্ধে রিপোর্ট তলব করেছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। যদিও এই ঘটনা পুরো এখন সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টে উঠে গেছে এবং যার রায় কাল জানানো হবে।

The India Desk

Indian famous bengali portal, covers the breaking news, trending news, and many more. Email: theindianews.org@gmail.com

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close