Categories
দেশ নতুন খবর বিশেষ লাইফ স্টাইল

পহেলা জুন থেকে বদলে যেতে চলেছে রেল, রেশন কার্ড, ফ্লাইট পরিষেবা সহ একাধিক নিয়মাবলী! না জানলে অবশ্যই..

হাতে রয়েছে মাত্র দুটো দিন আর তার পরই শেষ হয়ে যাবে ভারত জুড়ে চলছে থাকা চতুর্থ দফার লকডাউন আর সেটি আগামী 31 শে মে হয়ে যাচ্ছে। দেশজুড়ে করোনা সংক্রমণ রুখতে জারি রয়েছে বিভিন্ন দফার লকডাউন আর এখন সেই লকডাউনের চতুর্থ পর্যায় পালন করছে দেশবাসী।তবে এখন যে খবরটি বেরিয়ে আসছে সেখানে জানতে পারা যাচ্ছে আগামী মাস থেকে অর্থাৎ জুন মাস থেকে বদলে যেতে পারে একাধিক নিয়ম।

চতুর্থ দফার লকডাউন শেষ হওয়ার পর থেকে অর্থাৎ জুন মাসের শুরু থেকেই দেশ জুড়ে রেল, বাস, রেশন কার্ড ও বিমান পরিষেবার ক্ষেত্রে পূর্বের বহু নিয়মের পরিবর্তন ঘটতে চলেছে।যেমনটা আমরা জানি দেশজুড়ে COVID-19 এর সংক্রমণ রুখতে চলতি বছরের মার্চ মাস থেকেই বন্ধ রয়েছে দেশের একাধিক পরিষেবা।তবে এই করোনা সংক্রমনের জেরে ভেঙে পড়েছে দেশের অর্থনৈতিক পরিকাঠামো। তাই এমন অবস্থায় ধীরে ধীরে সরকারের তরফ থেকে করোনাকে সঙ্গী করে সাধারণ জীবনে ফিরতে হলে পরিষেবার ক্ষেত্রে কমবেশি হেরফের ঘটবে, এক্ষেত্রে কোনো পরিষেবার দাম কমবে, আবার কোনটার দাম বাড়বে।

তবে আজকে আমরা আপনাদেরকে যে খবরটি জানাবো সেখানে জানতে পারবেন আগামী দিনে কী কী পরিবর্তন ঘটতে চলেছে দেশজুড়ে এই করোনার দরুন….
1) বদলে যাবে ট্রেন পরিষেবা- COVID-19 এর জেরে ভারতের ট্রেন পরিষেবাতে এক বড় পরিবর্তন আসবে। কারণ এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে জেরে যখন থেকে দেশজুড়ে লকডাউন শুরু হয়েছে তখন থেকে দেশের বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়েছেন অনেক মানুষ। তবে যেমনটা আমরা দেখতে পায় বিভিন্ন প্রান্তে আটকে পড়া শ্রমিকদের জন্য সরকারের তরফ থেকে শুরু করা হয় শ্রমিক স্পেশাল ট্রেন যেখানে এই পরিষেবা শুরু করা হয়েছে পহেলা মে থেকে।

আর তারপরেও আরো 15 জোড়া স্পেশাল ট্রেন চালু করা। আর রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এর তরফ থেকে গত কয়েকদিন আগেই একথা জানানো হয়েছিল যে আগামী জুন মাসের 1 তারিখ থেকে 200 টি করে ট্রেন চালাবে ভারতীয় রেলওয়ে। একথা রেলমন্ত্রী তার টুইটার হ্যান্ডেল এ জানিয়েছিলেন এবং সেখানে তিনি জানিয়েছিলেন টাইম টেবিল মেনেই প্রতিদিন 200 টি করে এসি ও নন এসি ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা করা হয়েছে। এর পাশাপাশি যে ট্রেনগুলি শুরু করা হতে চলেছে সেই ট্রেনগুলির টিকিট বুকিং করা যাবে আগে থেকেই, তবে তার পাশাপাশি থাকবে তৎকালীন টিকিটের ও সুবিধা।


2) এক দেশ, এক রেশন কার্ড পরিষেবা- কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এই ঘোষণা বহুবারই করা হয়েছে যে “এক দেশ, এক রেশন কার্ড “পরিষেবা খুব শীঘ্রই চালু হতে চলেছে গোটা দেশজুড়ে তবে এবার আগামী পহেলা জুন থেকে কেন্দ্রীয় সরকারের এই স্কিমটি শুরু করা হতে চলেছে। এই যোজনাটি হল “এক দেশ, এক রেশন কার্ড”। যারা জানেন না তাদের উদ্দেশ্যে বলে রাখি এই স্কিমটির একটিই উদ্দেশ্য যেটি হল দেশের বিভিন্ন রাজ্যে প্রত্যেক নাগরিকদের কাছে একই রেশন কার্ড থাকবে।যার ফলে এই রেশন কার্ড হোল্ডাররা ভারতের যে কোন রাজ্যে গিয়ে তাদের পর্যাপ্ত রেশন তুলে নিতে পারবেন। আর এই স্কিমটির দরুণ গরীব মানুষেরা লাভবান হবেন বলেই মনে করা হচ্ছে।

3) শুরু করা হবে বিমান পরিষেবা- এক্ষেত্রে সমস্ত সরকারি নির্দেশিকা মেনেই অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা চালু করা হতে চলেছে আগামী পহেলা জুন থেকে। যার দরুন গো-এয়ার ফ্লাইট শুরু হবে 1 লা জুন থেকে।

4) দাম বাড়তে চলেছে পেট্রোল-ডিজেলের- এই মুহূর্তে করোনার জেরে গোটা বিশ্বের অর্থনৈতিক ব্যবস্থা একপ্রকার ভেঙে পড়েছে তাই এর জেরে যে এবার পেট্রোলের দাম বাড়তে পারে তা নিঃসন্দেহে বোঝা যাচ্ছে।যদিও এক্ষেত্রে চতুর্থ দফার লকডাউন চলাকালীন গাড়ি চলার ক্ষেত্রে বেশ কিছু ছাড় প্রদান করা হয়েছিল। তবে এবার আগামী জুন মাসের 1 তারিখ থেকে পাবলিক ও প্রাইভেট ট্রান্সপোর্ট এর ক্ষেত্রেও ছাড় দেওয়া হবে।

তবে সেই ক্ষেত্রেও সরকারি নির্দেশ পালন করা হবে। তবে এতদিন পর ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম চালু হওয়ায় পেট্রোলের চাহিদা ও দাম উভয়ই বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।