পোস্ট অফিসের গ্রাহকদের জন্য জারি একাধিক নতুন নিয়ম, এবার থেকে পোস্ট অফিসের গ্রাহকেরা পাবেন

করোনা সংক্রমনের জন্য বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে লকডাউন চালানো হয়েছিল ভারতবর্ষেও। লকডাউনের জন্য ভারতের অর্থনীতি একদম মুখ থুবড়ে পড়েছে। সঞ্চয় এর মাধ্যমে এই অর্থনীতি আবার ঘুরে দাঁড়াতে পারে। এই কথা মাথায় রেখেই কেন্দ্রীয় সরকার পোস্ট অফিসে টাকা তোলা ,জমা দেয়ার নীতিতে এবং সেভিংস অ্যাকাউন্টে সুদের হারের বিষয়ে কিছু পরিবর্তন এনেছে। চলুন এবার বিশদে এই পরিবর্তনগুলো জেনে নেওয়া যাক।

আমরা দেখেছি ব্যাংকে যেখানে দিনে দিনে সুদের হার কমছে ঠিক ওর বিপরীত দিকে পোস্ট অফিসে গ্রাহকদের জন্য অধিক সুদের ব্যবস্থা করা হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত অর্থনৈতিক ব্যবস্থাকে দাঁড় করানোর জন্য কেন্দ্রীয় সরকার এবার পরিকল্পনা করেছেন পোস্ট অফিসে টাকা তোলার নিয়মে কিছু পরিবর্তন আনবে। পোস্ট অফিসে সেভিংস অ্যাকাউন্টে সুদের হার বাড়ানো হল। এছাড়াও এবার থেকে গ্রাহকরা পোস্ট অফিসের অ্যাকাউন্ট থেকে দিনে সর্বাধিক কুড়ি হাজার টাকা পর্যন্ত তুলতে পারবেন।

পোস্ট অফিস

আগে একদিনে পাঁচ হাজারের বেশি টাকা সেভিংস অ্যাকাউন্ট থেকে তুলতে পারতেন না গ্রাহকরা। এবার সেই টাকার পরিমাণ বাড়িয়ে কুড়ি হাজার টাকা করা হল। বাড়ানো হল জমা দেওয়ার টাকার পরিমান। এখন থেকে গ্রাহকরা ৫০ হাজার টাকা পর্যন্ত একদিনে তাদের সেভিংস অ্যাকাউন্টে জমা করতে পারবেন। সেভিংস অ্যাকাউন্টের বার্ষিক সুদের হার ৪ % করা হলো।

আগে পোস্ট অফিসে সেভিংস অ্যাকাউন্ট খোলার সময় ন্যূনতম ব্যালেন্স রাখতে হত ১০০ টাকা। এখন সেই টাকার পরিমাণ বাড়িয়ে করা হলো ৫০০ টাকা। পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড, সিনিয়ার সিটিজেন সেভিংস স্কিম, মান্থলি ইনকাম স্কিম, কিষান বিকাশ পত্র, ন্যাশনাল সেভিংস সার্টিফিকেট সহ আরও কিছু স্কিমগুলিকে পোস্ট অফিসের অ্যাপের সাথে যুক্ত করা হল।