আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে যেসব জায়গা গুলি থেকে প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে পারেন মুকুল রায়।

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি 22 টি আসনে টার্গেট করে নিয়েছে ইতিমধ্যে। তবে এবার 42 টি আসনেই নিজেদের প্রার্থী দেবে বলে জানানো হয়েছে গেরুয়া শিবির তরফ থেকে। লোকসভা নির্বাচনে জয়ী হতে গেলে সমস্ত নেতাদের  ময়দানে নামতে হবে বলে দিয়েছেন বিজেপি নেতৃত্বরা। দিলীপ ঘোষ,লকেট চ্যাটার্জি,রাহুল সিনহা এদের মতো এবার মুকুল রায় কেউ প্রার্থী করা হতে পারে বলে গোপন সূত্রে খবর পাওয়া গেছে। কয়েকটি জায়গার নাম উঠে আসছে যেখানে মুকুল রায় প্রার্থী হিসেবে দাঁড়াতে পারেন –

5. বারাসাত :-বারাসাত হলো তৃণমূলের গুরুত্বপূর্ণ ঘাঁটি। সেখানে তৃণমূল অনেকটাই শক্তিশালী বলে মনে করা হচ্ছে।সেখানেই মুকুল রায় কে প্রার্থী হিসেবে তার করাতে পারে গেরুয়া শিবির। এর কারণ হলো উত্তর 24 পরগনার মধ্যে বারাসাত হল অনেকটা বড় জায়গা। আর এখানেই শাসকদলের বিপরীতে বিজেপিতে যোগদান করা মুকুল রায় কে ময়দানে নামাতে পারে বিজেপি।

4. বসিরহাট:-এখানেও মুকুল রায় কে প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করাবার আশা আছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনে এখানে শাসকদলের বিরুদ্ধে বিজেপি অনেকটা লড়াই করেছে। আর এই লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি খুঁটি গাড়ার জন্য মুকুল রায় কে প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করাতে পারে।
3. বারাকপুর:-ব্যারাকপুরেও মুকুল রায়কে প্রার্থী দাঁড় করাতে পারেন। এর কারণ হলো বারাকপুরের মতো শক্তিশালী এলাকায় বিজেপি জয়ী হওয়াটা খুব গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন গেরুয়া শিবির।

2. কৃষ্ণনগর :-এই তালিকার মধ্যে কৃষ্ণনগরের নাম রয়েছে। পঞ্চায়েত নির্বাচনে কৃষ্ণনগরের শাসকদলের বিরুদ্ধে খুব একটা ভালো ফল করতে পারে নি গেরুয়া শিবির। তাই গেরুয়া শিবির এর তরফ থেকে মুকুল রায় কে এখানে প্রার্থী হিসেবে বেছে নেওয়া হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

1. উত্তরবঙ্গের কোন এক কেন্দ্র থেকে :-উত্তরবঙ্গের যেকোনো একটি কেন্দ্র থেকে মুকুল রায় কে প্রার্থী করা হতে পারে। কারন পাহাড়ী এলাকায় শাসকদল যথেষ্ট শক্তিশালী। আর সেই জন্য মুকুল রায় কে প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করিয়ে পাহাড়ে পদ্ম ফুল ফোটানোর আশা দেখছে গেরুয়া শিবির।

সূত্রের মাধ্যমে এই ক’টি জায়গায় সম্ভাব্য জানা গেছে, যদিও গেরুয়া শিবির থেকে লোকসভা নির্বাচনে তাদের সমস্ত পার্থীদের ময়দানে নামানোর কথা বলেছেন। তবে এখনো কাকে কোন জেলায় প্রার্থীপদ দেবেন তা ঠিক হয়নি।সূত্রের খবর অনুযায়ী মুকুল রায় কে যে সব এলাকায় পার্থীপদ দেওয়া যেতে পারে সেই এলাকাগুলির নাম আলোচনা করা হল।