Categories
দেশ নতুন খবর বিশেষ লাইফ স্টাইল

করোনা সংক্রমণ কালে গাড়ির ড্রাইভিং লাইসেন্স, পলিউশন সার্টিফিকেট নিয়ে বড় ঘোষণা কেন্দ্রের…

দেশজুড়ে করোনা সংকটকালে সাধারণ মানুষের জীবন যাপনের ক্ষেত্রে কিছুটা হলেও বিঘ্ন ঘটেছে। এখন চার চাকা হোক কিংবা দু চাকা সাধারণ মানুষের চলাফেরার ক্ষেত্রে একটি আনুষাঙ্গিক অঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এগুলোর জন্য প্রয়োজন রয়েছে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে গাড়ির নথিপত্র রিনিউ করা এবং ডাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করানোর। তবে দেশজুড়ে এই মহামারী করোনার কারণে দৈনিক একাধিক কাজকর্মে বাধা পড়েছে এবং এই মুহূর্তে টাকার টান পড়েছে অনেক মানুষেরই যার দরুন কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে গাড়ির নথিপত্র এবং ডাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করা নিয়ে একটি সুখবর বেরিয়ে এসেছে।

 

যেখানে জানানো হয়েছে গাড়ির লাইসেন্স সহ বেশ কিছু ক্ষেত্রে সময়সীমার ছাড় দেওয়া হয়েছে। যেখানে রয়েছে গাড়ির ফিটনেস, রেজিস্ট্রেশন সার্টিফিকেট, পলিউশন সার্টিফিকেট এগুলি রিনিউ করার সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে। যার ফলে বর্তমানে গাড়ি সংক্রান্ত নোটিশ মেয়াদ শেষ হলেও তা নতুন করে আবার করার জন্য প্রচুর সময় পাওয়া যাবে। ফলে গাড়ি সম্পর্কিত কোনো নথির মেয়াদ যদি শেষ হতে চলেছে কিংবা ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে তা হলেও কোন চিন্তার কারন থাকছে না কারণ যে নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে সেখানে বলা হয়েছে এবার 2020 সালের 31 শে ডিসেম্বরের মধ্যে এটি পুনর্নবীকরণ করতে পারেন। তবে শুধু তাই নয় তাছাড়াও সরকারের তরফ থেকে 2020 সালের 31 ডিসেম্বর পর্যন্ত আপনাদের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়া ড্রাইভিং লাইসেন্স রিনিউ করার সময়সীমাও বাড়িয়ে দিয়েছে।

প্রসঙ্গত যেমনটা আমরা জানি এর আগে লকডাউনের মধ্যে কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহনমন্ত্রীর তরফ থেকে একটি নির্দেশিকা জারি করা হয়েছিল যেখানে তারা জানিয়েছিলেন লকডাউনের মধ্যে যেসব ব্যক্তির উত্তীর্ণ ড্রাইভিং লাইসেন্স, আরসি, ফিটনেস সার্টিফিকেট, পারমিট এবং অন্যান্য যে নথিপত্র গুলি রয়েছে সেগুলির মেয়াদ আগামী 30 শে জুন 2020 পর্যন্ত বাড়ানো হচ্ছে।যদি ভবিষ্যতে দেখা মেলে পরিস্থিতির উন্নতি ঘটেনি তাহলে আবারও বাড়ানো হবে এর মেয়াদ এমনটাই জানানো হয়েছিল তাদের তরফ থেকে।

 

তারপরে আবারো একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানানো হয়েছিল এবার এই সময়সীমার মেয়াদকাল বাড়ানো হয়েছে 2020 সালের 30 সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তবে এখন আবার তৃতীয়বারের মতো সরকারের তরফ থেকে নির্দেশ জারি করে জানিয়ে দেওয়া হল ডিসেম্বর মাসের 2020 সাল পর্যন্ত বাড়ানো হল এই সময়সীমা। করোনা সংক্রমণ মাত্রা যাতে অতিরিক্ত পরিমাণে ছড়িয়ে না পড়ে, একসঙ্গে সকলে যাতে জমায়েত না করে তার জন্য ইতিমধ্যে অফিসে জড়ো না হওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

যার ফলে এই লকডাউন পরিস্থিতিতে ডকুমেন্টগুলি পুনর্নবীকরণ এর কাজ ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয়েছিল, ফলে অনেক মানুষ তাদের নথিপত্র গুলি পুনর্নবীকরণ করতে অফিসে পৌঁছাতে পারেনি যার ফলে একাধিক সমস্যা তৈরি হয়েছে। তাই পুরো বিষয়টিকে চিন্তাভাবনা করে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে এই সময়সীমা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এখানে জারি করা এই সরকারই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে মোটর ভিকেলস যে নথিপত্র গুলি রয়েছে তাদের মেয়াদকাল যদি 1 ফেব্রুয়ারি 2020 থেকে আগামী 31 শে ডিসেম্বর 2020 মধ্যে শেষ হয়ে যায় তাহলেও তার মেয়াদকাল 31 শে ডিসেম্বর 2020 পর্যন্ত বৈধ হিসেবে বিবেচিত করা হবে।