অনলাইনে টাকা পাঠাতে গিয়ে ভুল একাউন্টে টাকা চলে গেছে!জেনে নিন কিভাবে ফেরত পাবেন আপনার টাকা।

বর্তমানে অনলাইনে লেনদেন এর ব্যবহার দিন দিন বেড়েই চলেছে। আর বাড়বেই না বা কেনো ,অনলাইনে টাকা লেনদেন সাধারণের থেকে অনেকটাই সোজা , সময়সাপেক্ষ । এছাড়াও এখন ইলেক্ট্রিসিটি বিল বলুন অথবা রিচার্জ সবকিছুই অনলাইনে করা হচ্ছে। শুধু তাই নয় ইউপিআই এর উপর কেন্দ্রীয় সরকার অনেকটাই জোর দিচ্ছে। দ্রুত এক ব্যাংক থেকে অন্য ব্যাংকে টাকা পাঠানো অনলাইনের কোন জুড়ি হয় না। অনলাইনে টাকা পাঠালে যেমন সময়টা অনেকটাই বাঁচে, তেমন টাকাও বাঁচে। এখন আবার অনেক অনলাইন সংস্থা  প্রতিটি অনলাইনে লেনদেনের ওপর বিশেষ কিছু ক্যাশব্যাক অফারও দিয়ে থাকে।

অনেক সময় আমরা দ্রুত অনলাইনে টাকা পাঠাবার সময় কোন ভুল ব্যক্তির একাউন্টে টাকা পাঠিয়ে ফেলি এবং আপনি ভাবেন আর সে টাকা পাওয়া সম্ভব নয় , এবং এই কারনেই আপনি অনলাইনে টাকা লেনদেন করতে দ্বিধা বোধ করেন। তাই অনেক মানুষ অনলাইনে লেনদেন করতে পছন্দ করেন না, কিন্তু আজ আমরা আপনাকে জানাবো ভুল কোনো ব্যাক্তির ব্যাংকে  টাকা পাঠিয়ে ফেললে, সে টাকা ও আবার ফিরে পাওয়া সম্ভব। তাহলে আসুন জেনে নি , সে টাকা কিভাবে ফিরে পাওয়া সম্ভব ? প্রথমত অনলাইনে টাকা পাঠানোর জন্য আপনাকে ব্যাংকের নাম,  ব্যাংকের আইএফসি কোড এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নাম্বার দিতে হয় এবং আপনি তাড়াহুড়োতেই ভুল দিয়ে ফেললে টাকা চলে যায় অন্য ব্যাক্তির ব্যাংক একাউন্টে। এ থেকে রেহায় পাওয়ার দুটি পথ রয়েছে।

প্রথমত,আপনি ভুল করে যে অ্যাকাউন্ট নাম্বারে টাকা পাঠিয়েছেন তার যদি অস্তিত্ব না থাকে তাহলে একটি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই আপনার টাকা আপনার ব্যাংক একাউন্টে নিজেই ফেরত চলে আসবে।

দ্বিতীয়ত, যদি কোনো অন্য ব্যক্তির অ্যাকাউন্টে আপনার টাকা চলে যায় তাহলে, আপনি একটি লিখিত অভিযোগ আপনার ব্যাংকের শাখাতে জমা করতে পারেন  এবং ব্যাংকের আধিকারিকরা যে ব্যাংকে টাকা ভুল করে গেছে  সেখানকার আধিকারিকদের সাথে কথা বলে আপনার ব্যাংক একাউন্টে টাকা ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করবে । অন্য ব্যাংকটির সহমতি ছাড়া আপনার টাকা আপনার একাউন্টে ঢুকবে না।

এছাড়াও আপনার টাকা গৃহীত ব্যক্তিটি যদি আপনার টাকা দিতে ইচ্ছুক না থাকে তাহলে, আপনি টাকা ফেরত পাবেন না।  তারপর আপনি আইনের দ্বারস্থ হতে পারেন, তবে আইনি পথে অনেকটাই সময় লেগে যায়। কিন্তু, শেষমেষ আপনি নিজের টাকা ফেরত পাবেন।

Related Articles

Back to top button