কর্মীদের প্রভিডেন্ট ফান্ড নিয়ে বড় সিদ্ধান্ত মোদী সরকারের, চাকুরীজীবিদের জন্য হতে পারে দারুণ সুখবর…

চাকুরীজীবিদের জন্য দারুন সুখবর নিয়ে আসতে চলেছে মোদি সরকার। এবার নতুন সামাজিক সুরক্ষা কোড বিলে 2019 এর কর্মীদের পিএফে কম টাকা জমা করার সুবিধা দেওয়া হয়েছে। অর্থাৎ এর আগে যে পরিমাণ টাকা জমা দিত কর্মীরা তার চেয়ে কম পরিমাণে টাকা জমা দিতে পারবে এবার। ইতিমধ্যে বিলটি বুধবার দিন অনুমোদন করা হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীসভা তে। আর খুব শীঘ্রই বিলটিকে অনুমোদনের জন্য পেশ করা হতে চলেছে সংসদে।

তবে এর আগে যেমনটা হতো মোট কর্মীর বেতন থেকে বিভিন্ন খাতে টাকা কাটা হয়ে থাকতো অর্থাৎ সেই কর্মী বাড়িতে যে বেতন নিয়ে যেতে পারতেন তা বিভিন্ন রকম টাকা কেটে নেওয়ার পরই, তবে এবার থেকে সেই কর্মীরাই নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী কম পরিমাণে টাকা পিএফএ জমা করতে পারবেন।অর্থাৎ এবার থেকে সেসব কর্মীরা বাড়িতে নিয়ে যেতে পারবে আগের তুলনায় বেশি টাকা।

মোদী সরকারের তরফ থেকে যে নতুন বিলটি আনা হচ্ছে সেখানে বলা হয়েছে যে সংস্থা এই কর্মীটিকে নিয়োগ করেছেন অর্থাৎ নিয়োগ কর্তাকে তার মোট বেতনের 12 শতাংশ অংশ টাকা দিতে হবে।তবে বর্তমানে যে নিয়মটি চালু রয়েছে সেখানে কর্মী এবং নিয়োগকর্তাকে অর্থাৎ দুই পক্ষকে মোট বেতনের 12% করে টাকা পিএফ খাতে জমা করতে হয়।

অন্যদিকে দেশের শ্রমিকদের কথা মাথায় রেখেই কেন্দ্র সরকার নিয়ে আসতে চলেছে এক নতুন ব্যবস্থা যেখানে নতুন সামাজিক সুরক্ষা কোড বিলে অর্থাৎ 2019 এ কেন্দ্রীয় সরকার যে অসংগঠিত ক্ষেত্রে শ্রমিকদের জন্য প্রস্তাব এনেছে সেখানে বলা হয়েছে শ্রমিকদের এবার থেকে দেওয়া হবে নির্দিষ্ট করে ইউনিক আইডেন্টিটি কার্ড। আর এই কার্ড এর মধ্যেই থাকবে সেই শ্রমিকের নিয়ে যাবতীয় তথ্য। শুধু তাই নয় এবার এই কার্ডটিকে সংযুক্ত করা হবে আধার কার্ডের সাথে। যার মাধ্যমে শ্রমিকরা অসংগঠিত ক্ষেত্রে সহজেই সরকারি সুযোগ-সুবিধা গুলি গ্রহণ করতে পারবেন পরবর্তী সময়ে।

Related Articles

Close