রান্নার তেলে গাড়ি চালানোর নতুন উদ্যোগ নিল মোদি সরকার, ভুলে যান পেট্রোল-ডিজেলের কথা…

মোদি সরকারের আমলে জ্বালানির দাম বেড়ে যাওয়া কে কেন্দ্র করে বারবার অস্বস্তিতে পড়তে হচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকারকে। বাইরের দেশ থেকে জ্বালানি ভারত কিনে তাই ভারতে জ্বালানির দাম এত বেশি। ফলে মধ্যবিত্ত দের পক্ষে জ্বালানি কেনা অনেকটা কষ্টকর হচ্ছে। তবে চিন্তার কোন কারণ নেই এই সমস্যার সমাধান খুঁজে ফলেছে মোদি সরকার। তাই এবার থেকে রান্নার তেলে গাড়ি চালানোর এক বিশেষ উদ্যোগ নিল কেন্দ্রীয় সরকার। ইতিমধ্যেই এই উদ্যোগ নিয়ে ফেলেছে পেট্রোলিয়াম মন্ত্রক।

রান্নার তেল থেকে বায়োডিজেল তৈরি করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। জানা গিয়েছে দেশের মোট 100 টি শহরে এই প্রক্রিয়া চলবে। ফলে জ্বালানির জন্য ভারতকে বাইরের কোন দেশের উপর নির্ভরশীল থাকতে হবে না এবার থেকে। পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান বলেন, মোট তিনটি সংস্থার সঙ্গে যৌথভাবে বায়োডিজেল তৈরি করার প্লান্ট তৈরীর পরিকল্পনা চলছে। বেসরকারি সংস্থাগুলো এ বায়োডিজেল তৈরির প্লান্ট করতে আগ্রহী হবে বলে মনে করেছেন তিনি।

প্রথমে 51 টাকা প্রতি লিটার হিসেবে ওই বায়োডিজেল তৈরি করা হবে। পরের বছর বাড়িয়ে 52.7 টাকা এবং তার পরের বছর 54.5 টাকা প্রতি লিটার করা হবে।
2022 এর মধ্যে জ্বালানি নিয়ে যে বাইরের দেশের উপর নির্ভরতা সেটি কমানোর কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি সংরক্ষণ এবং তার বিকল্প ব্যবস্থা করবে বলছেন। রান্নার জন্য আমরা বাড়িতে যে তেল ব্যবহার করি সেই থেকে জ্বালানি তৈরি হবে। বিভিন্ন  হোটেল এবং রেস্তোরা সেই তেল সাপ্লাই করবে। কিছুদিন আগে বিমান ওড়ানোর কাজে জৈব জ্বালানি ব্যবহার করা হয়েছে। গতবছর কুকিং অয়েলকে জৈব জ্বালানি তেল পরিবর্তন করার উদ্যোগ নেন দেরাদুনের ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ পেট্রোলিয়াম।

এই কুকিং অয়েল থেকে তৈরি জৈব জ্বালানি ব্যবহার করছে McDonald’s নামক ফাস্ট ফুড সংস্থা। এক রিপোর্ট থেকে জানা গেছে, ওই ফাস্ট ফুড সংস্থাটিকে 35,000 লিটার ব্যবহৃত কুকিং অয়েলকে বায়ো ডিজেল এ পরিবর্তন করতে সাহায্য করেছে। এই রিপোর্ট অনুযায়ী হিসাব করে দেখা গেছে বছরে 420,000 লিটার অপরিশোধিত তেল বাঁচানো সম্ভব হচ্ছে। খাদ্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা FSSAI সমস্ত খাবারের দোকান গুলোকে পুনরায় কুকিং অয়েল ব্যবহার করতে নিষেধ করেছে এবং তার পরিবর্তে সেই তেল জৈব জ্বালানি নির্মাতাদের কাছে সরবরাহ করার নির্দেশ দিয়েছে।