নতুন খবরবিশেষরাজনৈতিক

152 বছরের পুরনো প্রথাকে বদলাতে চলেছেন মোদি সরকার।

ভোটের আগে ফের একবার চমক দিল মোদী সরকার। অর্থবর্ষ বদলাতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। সম্ভবত এপ্রিল থেকে জানুয়ারিতে হতে পারে আর্থিক বছর। কেন্দ্রীয় সরকারের মতে অর্থবর্ষ বদলালে সাধারণ মানুষের অনেক সুবিধা হবে। কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প গুলির সুবিধা নিতে পারবে সাধারণ মানুষেরা। খুব তাড়াতাড়ি এই আর্থিক বছর চেঞ্জ হতে চলেছে বলে সূত্রের খবর। জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত হতে পারে অর্থবর্ষ। বর্তমানে নিয়ম অনুসারে আর্থিক বছর এপ্রিল থেকে শুরু হয় এবং পরের বছর মার্চে শেষ হয়। এই নিয়ম গত 152 বছর ধরে চলে আসছে।


1867 সাল থেকে এই নিয়ম শুরু হয়েছে। আপনারা হয়তো অনেকেই জানেন না, 2016 সাল থেকেই জানুয়ারি থেকে অর্থিক বছর শুরু হওয়ার কথা চিন্তাভাবনা করছিল কেন্দ্রীয় সরকার। এমন পরিবর্তনের পক্ষে প্রশ্ন করেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী । মোদী বলেছিলেন, সত্যিই যদি পরিবর্তন ঘটে তাহলে একটা ঐতিহাসিক পরিবর্তনের সাক্ষী থাকবে গোটা দেশের মানুষেরা। প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন করেছিলেন যে, দেশে কৃষির আয় অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই দেশের কৃষিদের আয় আসার পরে সঙ্গে সঙ্গে বাজেট পেশ করা উচিত। জুন মাস থেকে দেশে বর্ষা শুরু হয়। তাই বেশিরভাগ কেন্দ্রীয় সরকারের প্রকল্প পৌঁছাতে পৌঁছাতে অক্টোবর মাস ঢুকে যায়। এর ফলে ছয় মাসের মধ্যে কেন্দ্রের প্রকল্পগুলিকে বাস্তবায়ন করতে হয়, যা ঠিক ভাবে করা যায় না। এরপরে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির উদ্যোগে উচ্চপর্যায়ের একটি কমিটিও তৈরি করা হয়। সেই কমিটিতে রিপোর্ট জমা দেওয়া হয়।


তবে এর আগে মোদি সরকার বাজেট পেশের সময়টা কিছুটা এগিয়ে এনেছে। মোদি সরকার এখন 1 ফেব্রুয়ারি বাজেট পেশ করছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, মোদি সরকার বাজেট পেশের সময়টা যদি এগিয়ে নিয়ে আসে তাহলে সাধারণ মানুষের খুব একটা অসুবিধা হবে না। তবে কর জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে নতুন করে পরিকল্পনা করতে হবে বলে মনে করেছেন বিশেষজ্ঞরা। এ বিষয়ে আপনারা কি মনে করেন তা আমাদের অবশ্যই জানাবেন। আরো এরকম নতুন নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের এই পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button