জম্মু-কাশ্মীরে বিলুপ্ত হলো ধারা 370! এবার থেকে লাগু হবে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ, হিন্দু-শিখরা পাবে 16% সংরক্ষণ।

মোদি সরকার দ্বিতীয় ইনিংসে আবার বাজিমাত করলো। ইতিমধ্যে খবর পাওয়া গেছে কাশ্মীর থেকে 370 ধারা তুলে দেওয়ার। অমিত শাহ আজ সংসদে ঘোষণা করে দিয়েছেন যে কাশ্মীর থেকে 370 ধারা তুলে নেওয়ার। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সুপারিশ বিলের উপর রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ স্বাক্ষর করে দিয়েছেন বলে সূত্রের খবর। কিন্তু কংগ্রেস ও আরো অন্যান্য বিরোধী দলগুলি 370 ধারা তুলে নেওয়া নিয়ে রাজ্যসভায় হৈচৈ করছে। তবে কেন্দ্রীয় সরকার বিরোধীদের কথায় কান না দিয়ে নিজের কাজ করেছে এবং এই ধারা বিলুপ্ত করে দিয়েছে।

কার্যত বলা যেতে পারে জহরলাল নেহেরু যে ভুল করে গেছেন তা সমাধান করে দিয়েছেন বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। জম্মু কাশ্মীর নিয়ে একটি গুরুত্বপূর্ণ খবর আপনাদের জানিয়ে দিই, সরকার জম্মু-কাশ্মীর কে তিন ভাগে ভাগ করে দিয়েছেন। জম্মু, কাশ্মীর ও লাদাখকে তিন ভাগে ভাগ করে পুরোটাই কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করা হয়েছে। এবার থেকে লাদাখ একটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এবং অপর দিকে জম্মু-কাশ্মীর একটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল।

সরকারের এই সিদ্ধান্তের ওপর চরম বিরোধিতা করছে কট্টরপন্থী নেতারা। এমনকি মেহেবুবা মুফতি আজকের এই দিন টিকে কালো দিন বলে ঘোষণা করেছেন। তবে কাশ্মীরের পরিস্থিতি যাতে নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকে তার জন্য মেহেবুবা এবং ওমর আব্দুল্লাহকে গৃহবন্দী করে রাখা হয়েছে। রাষ্ট্রপতি তাৎক্ষণিক প্রভাবের সাথে এই 370 ধারা বাতিল করেছেন। এবার থেকে জম্মু ও কাশ্মীর একটি আলাদা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল হবে যেমন দিল্লি রয়েছে। অর্থাৎ এখানে বিধানসভা নির্বাচন হবে কিন্তু রাজ্যপালের হাতে ক্ষমতা থাকবে। অন্যদিকে লাদাখকেও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা হয়েছে কিন্তু এখানে কোনো নির্বাচন হবে না। বলা যেতে পারে এটি চন্ডিগড় এর মত কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে পরিণত করা হয়েছে। এখানে সরাসরি কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ন্ত্রণ করবে।

তবে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ এখন জম্মু ও কাশ্মীরে প্রযোজ্য হবে, এর পাশাপাশি আরটিআইও প্রযোজ্য হবে, শুধু এটাই নয় শিখ ও হিন্দুরা জম্মু ও কাশ্মীরের 16% রিজার্ভেশন পাবে।

Related Articles

Back to top button