দ্য কাশ্মীর ফাইলস এর স্টার মিঠুন চক্রবর্তীর জীবনের এই রেকর্ড যা এখন পর্যন্ত কেউ ভাঙতে পারেনি

প্রবীণ বলিউড (Bollywood) অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty) প্রায় ৪০ বছরের বেশি সময় ধরে ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করে চলেছেন। বর্তমানে সেইভাবে সিনেমায় অভিনয় না করলেও রিয়্যালিটি শো-এর বিচারকের আসনে দেখতে পাওয়া যায় মিঠুন চক্রবর্তীকে। তবে কাশ্মীর ফাইলস সিনেমাতে অসাধারণ অভিনয় করে আরো একবার নিজেকে প্রমাণ করে দিলেন মিঠুনদা। ঘর এক মন্দির, হামসে হে জামানা, অবিনাশ, দুর্নীতি, বাজি, পেয়ার জুকতা নেহি সহ আরো প্রচুর সিনেমায় অভিনয় করেছেন তিনি। বাঙালি এই অভিনেতা শুধুমাত্র বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে নিজের জায়গা করেছেন তা নয় সকলের জীবনে দাদা হিসেবে আলাদা জায়গা করে নিয়েছেন।

১৯৭৬ সালে বাংলা ছবি মৃগয়া, নামক সিনেমার হাত ধরে সিনেমা জগতে প্রবেশ করেছিলেন তিনি। মৃণাল সেন পরিচালিত এই সিনেমায় অসাধারণ অভিনয় করে জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হন তিনি। আমাদের প্রিয় মিঠুনদা হয়তো এমন একজন অভিনেতা যিনি প্রথম সিনেমায় অভিনয় করে জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হয়েছিলেন।১৯৮২ সালে মুক্তি পেয়েছিল ডিস্কো ড্যান্সার যা কোটি টাকার ব্যবসা করেছিল আবার ২০২২ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত দা কাশ্মীর ফাইলস একইভাবে কয়েক শ’ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে।

জাতীয় পুরস্কারে ভূষিত হলেও মিঠুন চক্রবর্তী খ্যাত এই শিরোনামে পৌঁছেছিলেন ডিস্কো ড্যান্সার সিনেমার হাত ধরে। অনেকেই মনে করেন, বাপ্পি লাহিড়ী এবং মিঠুন চক্রবর্তী একে অপরের পরিপূরক ছিলেন। মিঠুন চক্রবর্তী সিনেমা মানেই বাপি লাহিড়ীর গান হবে এমনটাই মনে করা হতো।

শুধুমাত্র দেশে নয়, বিদেশেও মিঠুন চক্রবর্তীর প্রচুর ভক্ত রয়েছেন। সিনেমা জগতে অভিনয় করা ছাড়াও তিনি হোটেল ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। উটিতে নিজের হোটেল ব্যবসা শুরু করেছিলেন যা আজও সাফল্যের সঙ্গে চলছে। বর্তমানে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় না করলেও পার্শ্বচরিত্রে অভিনয় করে সফলতার সঙ্গে নিজেকে প্রমাণিত করে চলেছেন তিনি বারবার।