হেলমেটে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে খেলার আসল রহস্য অবশেষে উন্মোচন করলেন মাস্টার ব্লাস্টার

দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের দিন বহুদিনের অজানা রহস্য ফাঁস করলেন ভারতের সর্বকালীন সেরা ক্রিকেটার শচিন টেন্ডুলকার। ভালো করে লক্ষ্য করলে দেখেতে পাবেন তার সমগ্র ক্রিকেট জীবনে হেলমেটে বরাবরই জাতীয় পতাকার স্টিকার লাগানো থাকত। কখনো আবার গ্লাভসে দেখা গিয়েছে গেরুয়া,সাদা ও সবুজ রং। এছাড়া ব্যাটের গ্রিপে এ ও জাতীয় পতাকার রং দেখেতে পাওয়া যেত মাস্টারব্লাস্টারের। তবে হেলমেটে জাতীয় পতাকার স্টিকার রাখার রহস্য আজ অবধি কেউ কোনদিনও ভেদ করতে পারেননি। তবে দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের দিন শচীন নিজেই এই রহস্যের অবসান ঘটালেন, ফাঁস করলেন বহুদিনের অজানা রহস্য। এদিন সোশাল মিডিয়া টুইটারে টুইট করে বিশ্বের এই খ্যাতনামা ক্রিকেটার জানান,’ আমি সর্বদা গর্বের সঙ্গে হেলমেটে জাতীয় পতাকা পড়ে থেকেছি। এটা সব সময় আমাকে মনে করিয়ে দিত কেন আমি মাঠে নেমেছি’। অর্থাৎ, হেলমেটের এই জাতীয় পতাকায় শচীনকে দেশের হয়ে খেলতে নামার দায়বদ্ধতার কথা স্মরণ করিয়ে দিত।

সেই সঙ্গে শচীন আরও লেখেন, ‘ সারা বিশ্বে ছড়িয়ে থাকা সমস্ত ভারতীয়কে ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। জয় হিন্দ’। ক্রিকেটের মাঠে সেঞ্চুরির পর হেলমেটে লাগানো জাতীয় পতাকায় শচীন টেন্ডুলকারের চুম্বন এখনো প্রতিটি ভারতীয় ক্রিকেট প্রেমীর মনে উজ্জ্বল।

আসলে এভাবেই তিনি দেশের প্রতি ভালোবাসা ব্যক্ত করতেন।বুঝিয়ে দিতেন, দেশের প্রতিনিধিত্ব করে তিনি কতটা গর্বিত। দেশকে অবশ্য সত্যিই তিনি অনেক সুন্দর মুহূর্ত উপহার দিতে পেরেছেন,সেই সাথে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে নিয়ে এসেছিলেন এক সোনালী অধ্যায়। তিনি ক্রিকেটের ভগবান, তাকে দেখেই ক্রিকেট ব্যাট হাতে তুলে নিয়েছেন কোটি কোটি তরুণ-তরুণী। তিনিই এখন গোটা ভারত বাসীর কাছে গর্ব, অহকার।