তালিবানের সাথে হাত মিলিয়ে ভারতে ভয়ঙ্কর হামলার ছক মাসুদ আজহারের! ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে খবর..

পাকিস্তানের মদদ পুষ্ট জঙ্গি সংগঠনের প্রধান জইশ-ই- -মহম্মদ ভারতের ওপর আরো বড় আঘাত আনার ছক কষছে। গোয়েন্দা সূত্রে জানতে পারা গেছে এই জন্য এই জঙ্গি সংগঠনের প্রধান মাসুদ আজাহার হাত মিলিয়েছে তালিবান ও হাক্কানি সংগঠনের জঙ্গী গোষ্ঠীর সঙ্গে। এই মুহূর্তে ভারতীয় গোয়েন্দা সূত্রে পাওয়া খবর থেকে জানতে পারা গেছে এই তিন পক্ষের মধ্যে একাধিকবার বৈঠক হয়েছে এই বিষয়ে। গত 14 ই ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফের কনভয়ে জঙ্গি হামলা হয় যার দরুন ভারতের 40 জনেরও বেশি জওয়ানেরা শহীদ হন এবং আহত হন আরো অনেকেই। আর এই জঙ্গী হামলার পেছনে দায় স্বীকার করেছিল মাসুদ আজহার আর এই মাসুদ ই হল জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গী সংগঠনের প্রধান।

তারপর থেকেই দেশের সুরক্ষার খাতিরে নিরাপত্তা কে আরো বাড়ানো হয়েছে। আগের তুলনায় ভারতীয় গোয়েন্দাদের আরো বেশি সক্রিয় করা হয়েছে। আর অন্যদিকে কাশ্মীরে হওয়া এই জঙ্গি হামলার বদলাও নিয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী।ভারতীয় বায়ুসেনা পাকিস্তানের বালাকোটে গিয়ে জইশ-ই- মহম্মদের বড় বড় জঙ্গি ঘাঁটি গুঁড়িয়ে দিয়েছে। আর এই ঘটনার পরেই পাকিস্তান সীমান্তের ওপার থেকে বারবার যুদ্ধবিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে গোলাবর্ষণ করা হচ্ছে এছাড়া পাকিস্তান আকাশ পথে হামলার ও চেষ্টা করছে বারবার ভারতে। তবে তাদের এই চেষ্টা বিফল করতে সক্ষম হয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। অন্যদিকে আকাশসীমা থেকে শুরু করে দেশের সর্বোচ্চ জায়গায় নিরাপত্তা আগের তুলনায় অনেকগুণ বাড়ানো হয়েছে। আর এবার গোয়েন্দা রিপোর্টে জইশ সামনে আসতেই নিরাপত্তার উপর আরো জোর দেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে। গোয়েন্দা রিপোর্ট সূত্রে জানা গেছে গত বছর ডিসেম্বরে প্রথমবার বৈঠক হয়েছিল এই জঙ্গি গোষ্ঠীর মধ্যে।

আর তারপরে এরা ঠিক করে ভারতের মাটিতে আরো বড় হামলা করতে হবে এর জন্য তালিবানের কাছে প্রশিক্ষণ নেবে জইশ জঙ্গিরা। আর যেমন কি আপনারা জানেন এই বৈঠকের পরই পুলওয়ামায় হয় হামলা সে হামলা সঙ্গে জইশের এই পরিকল্পনার কোন যোগ আছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখছে ভারতীয় গোয়েন্দারা। তবে গোয়েন্দারা আরো জানতে পেরেছে ঠিক একই ভাবে আফগানিস্তানেও হামলার ছক কষেছে এই জঙ্গিগোষ্ঠী।