দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

ব্রেকিং নিউজ:- বালাকোট এয়ার স্ট্রাইকে মারা গেছে মাসুদ আজহার? পাকিস্থান করেছে মাসুদের অসুস্থতার মিথ্যা মন্তব্য।

এ কথা কারো জানতে বাকি নেই 26 শে ফেব্রুয়ারি ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের কাছে বালাকোটে ভোর সাড়ে তিনটার নাগাদ এয়ার স্ট্রাইক করেছিলেন। আর এই এয়ার স্ট্রাইক হয়েছিল কুড়ি মিনিট ধরে এই এয়ার স্ট্রাইকের ফলে বহু আতঙ্কবাদী শেষ হয়েছিল। তবে এই এয়ার স্ট্রাইক করা হয়েছিল জইশ-ই-মহম্মদের জঙ্গি ঘাঁটি গুলিকে সাফ করার জন্য। ভারতীয় বায়ুসেনা বাহিনী পরিকল্পনা সহিত 1000 কেজি বোমার সাথে গিয়ে পাকিস্তানের বালাকোটের আতংবাদি ক্যাম্পের ওপর অ্যাটাক করেছিল।যার ফলে পাকিস্তানের 300 বেশি আতংবাদি সাফাই করা সম্ভব হয়েছে। যদিও এখনো পর্যন্ত পাকিস্তান তাদের পুরনো স্বভাব বোঝায় রেখেছে এবং এটা মানতে অস্বীকার করেছে যে ভারতের এয়ার স্ট্রাইক এর দরুন তাদের কোন প্রকার ক্ষতি হয়েছে বলে।

 

পাকিস্তান দাবি করেছে ভারতীয় সেনাবাহিনীর করা এয়ার স্ট্রাইকে তাদের কোন প্রকার ক্ষতি হয়নি। তাদের দাবি ভারতীয় বায়ুসেনাবাহিনীর করা এয়ার স্ট্রাইক এর ফলে শুধুমাত্র ক্ষতি হয়েছে তাদের কিছু গাছের বাকি কিছু ক্ষতি হয়নি এমনটাই দাবি। তাদের দাবি ভারত ফাঁকা স্থানে বোমা ফেলেছিল তাই তাদের কোন প্রকার ক্ষতি হয়নি। আর পাকিস্তানের এরকম দাবি করার পরেই ভারতের কিছু দেশদ্রোহী ও তথাকথিত বুদ্ধিজীবীরা স্বীকার করে নিয়েছে যে পাকিস্তান সত্যি বলছে। যার ফলে তারা পরবর্তীকালে ভারতীয় সেনার উপর আঙ্গুল তুলতেও দ্বিধাবোধ করেনি।তবে আপনাদের বলে রাখি ধীরে ধীরে সময় বাড়ার সাথে সাথে খবর আসে মাসুদ আজহারের শ্যালক সহ কয়েকজন বড় আতংবাদি নেতা ভারতের করা এয়ার স্ট্রাইক এর দরুন শেষ হয়ে গেছে।তারপর থেকে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে মাসুদ আজহার কোথায় লুকিয়ে আছে? পরে পাকিস্তানি বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি মার্চের 1 তারিখ এর জবাব দিয়ে বলেন মাসুদ আজহার পাকিস্তান রয়েছে এবং তিনি অসুস্থ থাকায় ঘরের বাইরে বের হতে পারছেন না।

 

তবে এখন এক ইটালীয়ান সাংবাদিকের খবর চমকে দিয়েছে সবাইকে।এই ইটালিয়ান সাংবাদিক দাবি করে বলেন পাকিস্তানের বালাকোট থেকে ঘুরে এসেছেন তিনি এবং পাকিস্তানের স্থানীয় নাগরিকদের সাথে তিনি এই এয়ার স্ট্রাইক এর ব্যাপারে কথাও বলেছেন। এই সাংবাদিক পরবর্তীকালে বলেন যে সেখানকার স্থানীয়দের সাথে কথা বলে তিনি জানতে পারেন বহু ডজন লাশ আতঙ্কবাদী ক্যাম্পের এলাকা থেকে বের করা হয়েছিল অন্যদিকে পাকিস্তান দাবি করেছিল কেউ নাকি মারা যায়নি তাদের। অর্থাৎ এই ইটালিয়ান সাংবাদিক এ দাবি থেকে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে যে বহু ডজন লাশ বের হয়েছে এই জঙ্গী ঘাটি গুলি থেকে। এবার যে রিপোর্ট আসছে সেখানে বলা হচ্ছে মাসুদ আজহারও নাকি এই এয়ার স্ট্রাইকের দরুন মারা গেছে।

অন্যদিকে পাকিস্তান বলেছে মাসুদ নাকি খুবই অসুস্থ এবার কিছুদিন পর পাকিস্তান থেকে খবর আসবে যে অসুস্থতার কারণেই মাসুদ মারা গেছে। আর পাকিস্তান পরে মাসুদ এর ডেড বডিও দেখাবে না। মাসুদকে ভারতীয় বায়ুসেনা বালাকোটেই শেষ করে দিয়েছে, পাকিস্তান যতই লুকানোর চেষ্টা করুক না কেন সত্য সবার সামনে বেরিয়ে আসবেই।

Related Articles

Back to top button