দেশের দ্বিতীয় সবথেকে বড় নাগরিক সন্মান পেতে চলেছেন মেরি কম

বর্তমানে ভারতের মহিলারা সারা বিশ্বের কাছে ভারতের নাম নানানভাবে উজ্জ্বল করেছে। আর তাই সারা বিশ্বে ভারতের নাম উজ্জ্বল করার জন্য মহিলা খেলোয়াড় কে পদ্ম পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত করতে চলেছে মোদি সরকার। ক্রীড়া মন্ত্রালয় কয়েক জন খেলোয়াড়ের তালিকা প্রকাশ করেছে যারা এই পুরস্কার পাওয়ার যোগ্য। ক্রীড়া মন্ত্রালয় সূত্রে খবর ছয় বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন মেরি কমকে পদ্ম বিভূষণ সম্মানে সম্মানিত করা হতে পারে। এটি দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম নাগরিক সম্মান।

এছাড়া ব্যাটম্যান ব্যাটমিন্টন চ্যাম্পিয়ন পিভি সিন্ধু নাম পদ্মবিভূষণ পুরস্কার এর জন্য পাঠিয়েছে ক্রীড়া মন্ত্রক। বক্সার মেরি কম কে যদি পদ্মভূষণ সম্মানে সম্মানিত করা হয় তাহলে তিনি দেশের প্রথম মহিলা খেলোয়াড় যিনি পদ্মবিভূষণ সম্মানে সম্মানিত হবে। এর আগে মেরিকমকে পদ্মশ্রী ও পদ্মভূষণ সম্মানে সম্মানিত করা হয়েছে। এছাড়াও তিনি 2003 সালে অর্জুন পুরস্কার ও পেয়েছিলেন।

ইতিমধ্যে মেরিকম বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপে সাতটি মেডেল অর্জন করেছেন। যার মধ্যে ছটি স্বর্ণপদক রয়েছে এবং একটি রৌপ্য পদক রয়েছে। আরিনি বিশ্বের প্রথম মহিলা খেলোয়াড় যিনি এতগুলো পুরস্কার অর্জন করেছেন। সূত্রের খবর অনুসারে, পিভি সিন্ধু সহ আরো 8 খেলোয়াড়ের নাম পদ্মবিভূষণ পুরস্কারে সম্মানিত করার জন্য তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ওই আটজন  খেলোয়াড়দের মধ্যে রয়েছেন মনিকা বত্রা (টেবিল টেনিস), বিনেশ ফোগাট (কুস্তি), রানী রামপাল (হকি), হরমনপ্রীত কৌর (ক্রিকেট), সুমা শিরুর (শুটিং), এবং তাশি মালিক এবং নুংশি মালিক (পর্বতারোহী) ।

কাশি মালিক এবং নুংশি মালিক এরা সম্পর্কে দুই বোন। খবর পাওয়া গেছে, ক্রীড়া মন্ত্রক এই সমস্ত  খেলোয়াড়দের পদ্মবিভূষণ পুরস্কারে পুরস্কৃত করার জন্য এদের নামের পাশে মহর লাগিয়েছে। তবে ক্রীড়া মন্ত্রী কিরণ রিজিজু এই সমস্ত খেলোয়ারদের নামের পাশে সিলমোহর লাগাইনি বলে জানা গেছে।  ক্রীড়ামন্ত্রী কিরন রিজিজু তার নিজের সম্মতি দিলেই এই সমস্ত খেলোয়াড়দের নাম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে পদ্মবিভূষণ পুরস্কার এর জন্য পাঠানো হবে। তবে অসমের সুপারস্টার গার্ল হিমা দাস এর নাম নথিভুক্ত করা হবে কিনা তা নিয়ে এখনো কোন খবর আসেনি।

Related Articles

Close