চালু হচ্ছে মমতার “লক্ষী ভান্ডার প্রকল্প” মহিলারা পাবেন ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা, আবেদনের দিনক্ষণ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী

পশ্চিমবঙ্গবাসীদের জন্য এবার শুরু হচ্ছে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদনের কাজ। এই আবেদন করা যাবে দুয়ারের সরকার প্রকল্পের মাধ্যমে। বৃহস্পতিবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) জানান, গতবারই দুবারের সরকার প্রকল্পে ব্যাপক সাফল্য অর্জিত হয়েছে। আবারো পশ্চিমবঙ্গের শুরু হচ্ছে এই দুয়ারে সরকার প্রকল্প। এবার এই প্রকল্পে বিশেষভাবে নজর দেওয়া হবে লক্ষী ভান্ডার প্রকল্পের দিকে।

ভোট মঞ্চে নিজেদের জমিকে শক্ত করার জন্য বিধানসভা ভোটের প্রাক্কালে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের নতুন উদ্যোগ ছিল দুয়ারের সরকার প্রকল্প। ভোটের একদম আগে আগে নির্বাচন কমিশনের নিয়ম যখন লাগু হয়েছিল তখন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল এই দুয়ারে সরকার প্রকল্পের কাজ। মুখ্যমন্ত্রী এবার ঘোষণা করেছেন যে জনগণের স্বার্থে আবার চালু হচ্ছে এই দুয়ারে সরকার প্রকল্প। মুখ্যমন্ত্রীর ভাষায় ‘আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে চালু হচ্ছেলক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্প। ১৬ আগস্ট থেকে চালু হচ্ছে দুয়ারে সরকার।

১৬ আগস্ট থেকে ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দুয়ারে সরকারে আবেদন করতে পারবেন রাজ্যের মানুষ। এই লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের আওতায় ২৫ থেকে ৬০ বছর বয়সি প্রত্যেক মহিলা আবেদন করতে পারবেন। তবে যারা সরকারি পেনশন নিয়ে থাকেন তারা এই প্রকল্পের সুবিধা পাবেন না। এই প্রকল্পের আওতায় তপশিলি ও আদিবাসী মহিলাদের মাসে ১০০০ টাকা ও জেনারেল ও সাধারণ মহিলাদের মাসে ৫০০ টাকা করে ভাতা পাবেন। লক্ষ্মীর ভাণ্ডার ছাড়াও সমস্ত সরকারি প্রকল্পের জন্য আবেদন করা যাবে।’ ২৫ থেকে ৬০ বছর বয়সী ব্যক্তিরা সকলেই এই প্রকল্পের আওতায় আসতে পারবেন।

তবে সরকারি চাকুরিজীবি মানুষেরা এই প্রকল্পে আবেদন করতে পারবেন না। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন যে শিক্ষকদের নিজের জেলায় বদলির জন্য চালু করা হচ্ছে একটি নতুন প্রোটালের। তাঁর নাম “উৎসশ্রী”। এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, ‘শিক্ষকদের জন্য চালু হচ্ছে উৎসশ্রী প্রকল্প। যাঁরা নিজেদের জেলায় বদলি চান, বা বাড়ির সামনে কোনও স্কুলে তাঁদের ক্ষেত্রে। তবে দশজনে যদি এক জায়গায় চান, সেটা তো সম্ভব নয়। শিক্ষকদের যাতে দূরে যেতে না হয়। অন্তত যতটা সম্ভব তাঁদের কাছাকাছি করা যায় সেটা দেখার জন্য একটা পোর্টাল হচ্ছে। যেখান শিক্ষকরা নিজেরাই আবেদন করতে পারবেন। শিক্ষা দফতর সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবে।’