মোদীর পদত্যাগ দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা

দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র  মোদীর (Narendra Modi) পদত্যাগ দাবি করলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর অভিযোগ , দেশের পরিস্থিতি সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে গিয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রী মোদীর পদত্যাগ করা উচিত। বিধানসভায় কেন্দ্রের নয়া কৃষি বিল (Farm Bill) প্রত্যাহারের সপক্ষে একটি  প্রস্তাব আনা হয় রাজ্য সরকার এর পক্ষ থেকে । এই প্রস্তাবে কেন্দ্রের নয়া ৩টি কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়। পার্থ চট্টোপাধ্যায় বিধানসভায় এই প্রস্তাব পেশ করেন৷ বিজেপি বিধায়করা তখন হইচই করে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দিতে শুরু করেন।  তাঁরা।  মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য চলাকালীন-ই ওয়াকআউট করেন বিজেপি বিধায়করা।

জানা গিয়েছে, পার্থ চট্টোপাধ্যায় কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে যখন প্রস্তাব পেশ করছিলেন তখন বিজেপি বিধায়ক মনোজ টিগ্গা ‘জয় শ্রী রাম’ (Jai Shri Ram) স্লোগান দিতে শুরু করেন। সেই স্লোগানে যোগ দেয় প্রাক্তন   কংগ্রেস বিধায়ক দুলাল বর যিনি বর্তমানে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন। সরকার পক্ষের আনা এই প্রস্তাবের সমর্থনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়  বলেন “এটা খুব দুঃখের বিষয় যে কেউ আন্দোলন করলে, সন্ত্রাসবাদী তকমা দিয়ে সেই আন্দোলন ভেঙে দেওয়া হচ্ছে। ২৬ জানুয়ারি পুলিসের ইনটেলিজেন্স ফেলিওর ছিল। পুলিস নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। একটা-দুটো ছোট ঘটনা আন্দোলনের মধ্যে হতেই পারে, কিন্তু তার জন্য কৃষকদের দেশদ্রোহী, খালিস্থানি বলার তীব্র বিরোধিতা করছি।”

 

বিনামূল্যে 50GB ইন্টারনেট ডেটা অফার করছে Vodafone-Idea সংস্থা, তাই দেরি না করে

এরপরই মুখ্যমন্ত্রী আক্রমণ করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে। কৃষি আইনের বিরোধিতা করে  বিধানসভায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) পদত্যাগ দাবি করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “হয় এই তিনটি বিল প্রত্যাহার কর, নয় সরকার গদি ছাড়ো। দেশের পরিস্থিতি এখন হাতের বাইরে চলে গিয়েছে। তাই প্রধানমন্ত্রীর উচিত পদত্যাগ করা।” সেইসাথে মমতা চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেন  “আগে দিল্লি সামলা, তারপর বাংলা।”

বিজেপি সরকার কৃষকস্বার্থ বিরোধী, আদানি আম্বানিদের মত বড় শিল্পপতিদের  পৃষ্ঠপোষকতা করছে বলেও বিধানসভার ভাষণে জানান  মুখ্যমন্ত্রী। শেষে “জয় জওয়ান, জয় কিসান, জয় হিন্দ, জয় বাংলা” স্লোগান দিয়ে বক্তব্য শেষ করেন মুখ্যমন্ত্রী।