কলকাতাগামী সমস্ত বিমানের উড়ানকে বাতিল করতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর…

সমস্ত দেশ জুড়ে এখন একটাই আতঙ্ক করোনা। যার জেরে আজ বিকেল থেকে আগামী 31 শে মার্চ পর্যন্ত একাধিক রাজ্য, একাধিক জেলাকে নকডাউন করার ঘোষণা করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।অন্যদিকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও সেই একই পথে হেটে আজ বিকেল পাঁচটা থেকে আগামী 27 শে মার্চ রাত বারোটা পর্যন্ত রাজ্যের একাধিক জায়গাতে নকডাউন এর ঘোষণা করেছেন।
লকডাউন হলে এলাকায় কোন বাস,ট্যাক্সি ও গণপরিবহন চলবে না।

চলবে শুধুমাত্র জরুরি পরিষেবার গাড়ির যেমন এম্বুলেন্স। এছাড়া বন্ধ থাকবে সমস্ত রকম কারখানা এবং দোকানপাট।বিদেশ থেকে আসা সমস্ত যাত্রীদের বাধ্যতামূলকভাবে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে।প্রসঙ্গত বলে রাখি পশ্চিমবঙ্গের এখনো পর্যন্ত করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা 7 জন তবে এদের মধ্যে যারা আক্রান্ত হয়েছেন তারা মূলত বাইরে থেকে এসেছেন এদের মধ্যে দুজন লন্ডন থেকে এসেছেন এবং একজন সুইজারল্যান্ড থেকে।

একজন ট্রেন যাত্রায় করোনায় সংক্রমিত হয়েছে বাকিরা ব্যক্তির সংস্পর্শে আশায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এমনটাই জানতে পারা গেছে।তবে যাই হোক এখনো পর্যন্ত এরাজ্যে করোনায় স্থানীয় সংক্রমণের কোনো রেকর্ড নেই তাই এরকম এক পরিস্থিতিতে আরো সতর্ক রাজ্য প্রশাসন। রাজ্যে সর্তকতা বোঝায় রাখতে এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতাগামী সমস্ত উড়ান কে বন্ধ করার জন্য দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখলেন। করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য প্রশাসন এবার রুখে দাঁড়িয়েছে এদিন বিকেল চারটা থেকে শুরু হয়ে যাচ্ছে রাজ্যে লকডাউন।

আর এই সময় যারা বাইরে থেকে আসবেন তাদের 14 দিনের জন্য বাধ্যতামূলক ভাবে বাড়ীতে থাকার নির্দেশ জানানো হয়েছে কিন্তু তা সত্ত্বেও অনেকের মধ্যেই এই নিয়ম ভাঙার প্রবণতা দেখা দিয়েছে। তাই এরকম এক পরিস্থিতিতে এবার রেলওয়ে যোগাযোগের পর বিমান যোগাযোগের ব্যবস্থা ছিন্ন করার পথে হাঁটতে চলেছে রাজ্য সরকার সেই উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি লিখেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।