করোনা আক্রান্তদের বাড়ি বাড়ি পৌঁছে যাবে খাবার, হোম ডেলিভারি পরিষেবা চালু করল রাজ্য সরকার

ইতিমধ্যে চারদিকে ছেয়ে গেছে অমিক্রণ। আরো একবার পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য কঠোর পদক্ষেপ নিয়েছেন রাজ্য সরকার। আংশিক লকডাউন করার পাশাপাশি সর্তকতা অবলম্বন করার দিকে বাড়তি নজর দিচ্ছেন রাজ্য সরকার। তবে এবার আক্রান্তদের সুবিধার্থে আরো একটি পদক্ষেপ নিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রবিবার বাংলার গর্ব মমতা টুইট হ্যান্ডেল থেকে এই খবরটি জানানো হয়েছে।

টুইটারে লেখা হয়েছে, রাজ্য পঞ্চায়েত এবং গ্রামীণ উন্নয়ন কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় যে সমস্ত মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, সেই সমস্ত ব্যক্তিদের বাড়িতে হোম ডেলিভারি পরিষেবার মাধ্যমে সুষম খাদ্য সরবরাহের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আজ অর্থাৎ সোমবার থেকে এই পরিষেবা চালু হবে বলে খবর।

নবান্ন সূত্রে খবর, আর্থিক ভাবে পিছিয়ে থাকা আক্রান্তদের পরিবারের জন্য বাড়তি খাবার পৌঁছে দেওয়ার জন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি এই কাজে সাহায্য করবেন রাজ্য পুলিশ। কোন আক্রান্ত মানুষ যাতে অভুক্ত না থাকে তার জন্য এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে রাজ্য সরকার।

গতবছর রাজ্য সরকারের তরফ থেকে মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল রেশন এবং খাবার। এবারেও যাতে দুখস্থ মানুষরা খাবার পান, সেই দিকে নজর দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব এইচ কে ত্রিবেদী। আক্রান্তদের পরিবারের মাথাপিছু তিন কেজি চাল, দেড় কেজি ডাল, ১ কেজি মুড়ি, ৫ প্যাকেট বিস্কুট দেওয়া হবে। পাশাপাশি পৌঁছে দেওয়া হবে রান্না করা খাবার।

করোনা আক্রান্তদের পরিবারের মধ্যে যারা সকলে অসুস্থ, অথবা যারা একা রয়েছেন বাড়িতে, যাদের পক্ষে রান্না করে খাওয়া প্রায় অসম্ভব, সেই সমস্ত বাড়িতে রান্না করা খাবার পৌঁছে দেওয়ার কথা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন রাজ্য সরকার।বর্তমান পরিস্থিতিতে অনেকেই মৃদু উপসর্গ হলে নিজেকে আইসোলেশনে রাখছেন।আক্রান্তদের উদ্দেশ্যে এই ব্যবস্থা যে সার্বিকভাবে সকলের জন্য বেশ সুবিধাজনক প্রমাণিত হবে তা বলাই বাহুল্য।