দেশনতুন খবররাজনৈতিকরাজ্য

পুলওয়ামা: তদন্ত না করে বিদেশমন্ত্রক কেন দোষী চিহ্নিত করছে? প্রশ্ন মুখ্যমন্ত্রী মমতার..

পুলওয়ামায় সিআরপিএফ এর উপর হামলার ঘটনায় মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সিআরপি এফ উপর এই হামলা হওয়ার ঘটনায় মোদি সরকার কে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা পুরোপুরিভাবে ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি জানান মুখ্যমন্ত্রী। তারপর প্রশ্ন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা কি করছিল? তিনি এখানেই থামেননি তাঁর প্রশ্ন, বিদেশমন্ত্রক তদন্ত না করে কেন দোষীদের চিহ্নিত করছে? তদন্তের পর দোষীদেরকে উপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হোক। পুলওয়ামার হামলার পর বিবৃতি জারি করে বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, পাকিস্তানি মদতপুষ্ট এক জঙ্গি সংগঠন জইশ-এ- মোহাম্মদ এই আত্মঘাতী হামলা চালিয়েছে।

আজ অর্থাৎ শনিবার সংসদীয় দলের বৈঠক ডাকা হয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, সর্বদলীয় বৈঠক ডাকা উচিত ছিল।” শুক্রবার অর্থাৎ আগামীকাল বন্দে ভারতে এক্সপ্রেসের যাত্রার সূচনা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই নিয়ে মমতা বলেন,” শোক দিবস পালন করা হলো না আর এই সময় ট্রেন যাত্রার সূচনা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।” মমতা আরো বলেন যে,” রাজনীতি করতে চাই না। কিন্তু রাজনীতি শুরু হয়ে গেছে।” 14 ই ফেব্রুয়ারি অর্থাৎ বৃহস্পতিবার কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী  জঙ্গি হামলায় 44 জন জোয়ান শহীদ হন।  সমস্ত ঘটনার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানি মদতপুষ্ট জঙ্গী সংগঠন জইশ-এ- মোহম্মদ । আত্মঘাতী জঙ্গি ভিডিও প্রকাশ করেছে তারা।

বিদেশমন্ত্রক তাদের বিবৃতিতে জানান, মাসুদ আজহারকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিয়েছে পাকিস্তান। পাক সরকারের নিয়ন্ত্রণে তার সন্ত্রাসী সংগঠনের কার্যকলাপ ও বিস্তার পেতে চলেছে। ভারত সহ আরো নানান দেশে হামলা চালাচ্ছে ওই জঙ্গী সংগঠন। রাষ্ট্রসঙ্ঘে মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী হিসেবে ঘোষণা করার প্রস্তাব দিয়েছে ভারত সরকার। ভারত সরকারের প্রস্তাবে সায় দিয়েছে চীন। তার পরিপ্রেক্ষিতে আরো একবার রাষ্ট্রসংঘ কে প্রস্তাবের কথা মনে মনে করিয়ে দিয়েছে বিদেশমন্ত্রক।

Related Articles

Back to top button