ছাত্র-ছাত্রীদের ভবিষ্যৎ সুনিশ্চিত করতে দেওয়া হবে ক্রেডিট কার্ড! লিমিট থাকবে 10 লক্ষ টাকা, সরকার নিজে হবে গ্যারান্টার

বহু ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য তাদের বাবা-মায়েরা চিন্তা করেন পড়াশুনার খরচ চালাবেন কিভাবে। এখন সেই সুবিধা খুব সহজেই পেতে পারে পশ্চিমবাংলার মানুষ। এদিন এক সাংবাদিক বৈঠকে এমনই এক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এতদিন পর্যন্ত মধ্যবিত্ত ও নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের ছেলেমেয়েদের পড়াশোনা করানোটা বাবা-মায়ের কাছে খুবই কষ্টসাধ্য হয়ে যেত। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি এমনই এক প্রকল্পের আয়োজন করেছেন যে প্রকল্পের মাধ্যমে ছেলেমেয়েরা পড়াশোনার সুযোগ পাবে।পড়াশোনার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকার স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা আনতে চলেছে। ৩০ জুন এই প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিকভাবে লঞ্চ হতে চলেছে।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে ছাত্রছাত্রীরা স্নাতক, স্নাতকোত্তর, বিভিন্ন পেশাদারী কোর্স, গবেষণার জন্য 10 লাখ টাকা পর্যন্ত ঋণ নিতে পারে। স্টুডেন্টরা যদি এই ঋণ নেন তবে তারা চাকরি পাওয়ার পর 1 বছর থেকে 15 বছরের মধ্যে স্বল্প মূল্যে কিস্তিতে এই টাকা পরিশোধ করতে পারবে।

এই প্রকার ঋণ নেওয়ার জন্য ব্যাংকে কোনো গ্যারান্টার নিয়ে যেতে হবে না ছাত্র-ছাত্রীদের। যারা পশ্চিমবঙ্গে 10 বছর অন্তত বসবাস করেছেন তারা প্রত্যেকেই স্নাতক-স্নাতকোত্তর বেসরকারি ডিপ্লোমা কোর্স, গবেষণার জন্য ভারতের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং বিদেশের উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পড়ার সুবিধা পাবেন। ছাত্র-ছাত্রীরা 40 বছর বয়স পর্যন্ত এই ক্রেডিট কার্ডের সুবিধা নিতে পারে।