৩০ হাজার চাকরি রেডি, বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী মমতার

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রকল্পের মধ্যে অন্যতম একটি প্রকল্প হল স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড। এই কার্ডের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীরা স্কলারশিপের মাধ্যমে পড়াশোনা করেন। এই স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড বিতরণের কর্মসূচি থেকে বড়সড় একটি ঘোষণা করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে সরকারি অনুষ্ঠান থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ইতিমধ্যেই ৩০০০০ চাকরি রেডি হয়ে গেছে আমাদের। যেকোনো দিন আমরা কর্মী নিয়োগ করব। এই পদক্ষেপের ফলে বেকারত্বের সমস্যা অনেকটাই কমে যাবে।

এবার প্রশ্ন হল কারা কারা এই কর্মসংস্থানের সুযোগ পাবেন?
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, পলিটেকনিক এবং আইটিআই পাস করা প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত তিরিশ হাজার ছেলে মেয়েকে চাকরি দেওয়া হবে। জব ফেয়ার অথবা কর্ম মেলা অনুষ্ঠিত করে চাকরিপ্রার্থীদের সেতু বন্ধনের কাজটা রাজ্য সরকার আরো বেশি এগিয়ে দিয়েছে। শিল্প সংস্থাগুলির সঙ্গে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের সংযোগ ঘটানোর কাজ করে ফেলেছে রাজ্য সরকার এবার পরবর্তী পদক্ষেপ নিতে হবে।


এদিন বাংলার কৃতি ছাত্র-ছাত্রীদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, তোমরা অবশ্যই বিদেশে পড়তে যাও। কিন্তু মনে রাখবে পড়াশোনা শেষ করে রাজ্যের মাটিতে ফিরে এসো। এই মাটি তোমাকে যা দিয়েছে বা দিতে পারে তা অন্য কেউ দিতে পারবে না। বাংলার সন্তানরা যদি বাংলায় না থাকেন তাহলে এই বাংলার অর্থনীতি অথবা সমাজ সংস্কার কে চালাবেন?

প্রসঙ্গত, বাংলায় ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ গুলিতে একসময় ক্যাম্পাসিং এর রংরামা থাকলেও ইদানিং সেই রমরমা দেখতে পাওয়া যায় না। পলিটেকনিক অথবা আইআইটিতে সেই পরিসর আগে থেকেই ছোট ছিল। এর পেছনে কিছুটা দায়ী মহামারী অর্থাৎ করোনা ভাইরাস। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকারি আসার পর পলিটেকনিক এবং আই টি আই পাশের পর সরকারি পৃথক প্রশিক্ষণের কর্মসূচি নিয়েছিল, সেই প্রসঙ্গেই এত চাকরির কথা উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।