রাজামৌলির সামনে এমন শর্ত রাখলেন মহেশ বাবু যা শুনেই হুঁশ উড়ে গেল পরিচালকের

টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম একজন অভিনেতা হলেন মহেশ বাবু। মহেশ বাবুর যেকোনো সিনেমা দেখার জন্য ভক্তরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে থাকেন। সম্প্রতি এস এস রাজামৌলি পরিচালিত সিনেমা মহেশ বাবু অভিনয় করবেন একথা জানার পর থেকে আরও বেশি উচ্ছ্বসিত হয়ে রয়েছেন অভিনেতার ভক্তরা। কিন্তু আপনি কি জানেন, সিনেমাটি শুরু করার আগে মহেশ বাবু রাজামৌলির সামনে একটি বড় শর্ত রেখেছেন।

এস এস রাজামৌলি পরিচালিত এই সিনেমায় প্রথমে আলিয়া ভাট অথবা জাহ্নবী কাপুরকে অভিনেত্রী হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মহেশ বাবু পরিচালক এস এস রাজামৌলিকে সাফ জানিয়ে দেন তিনি যে সিনেমায় কাজ করবেন সেই সিনেমায় যেন কোন বলিউড অভিনেত্রী না কাজ করেন। স্বাভাবিকভাবেই মহেশ বাবুর কথা রাখতে গিয়ে বলিউড অভিনেত্রীকে বাদ দিতে হয়েছে পরিচালককে।

মহেশ বাবু ভীষণভাবে নিজের ইন্ডাস্ট্রিকে নিয়ে ব্যস্ত থাকেন সেটা আমরা সকলেই জানি। অনেকবার বলিউড ইন্ডাস্ট্রি থেকে ডাক এলেও তিনি রাজি হননি কাজ করতে। এমত অবস্থায় রাজামৌলি পরিচালিত সিনেমায় তিনি আরও একবার এই শর্ত রেখে প্রমাণিত করে দিলেন যে তিনি বলিউডের কোন অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে কাজ করতে রাজি নন। মহেশ বাবুর কথা মত এই সিনেমায় রাজামৌলি বেছে নিয়েছেন দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অন্য একজন অভিনেত্রীকে।

মহেশ বাবুর এই সিদ্ধান্ত আরও একবার প্রমাণিত করে দিল যে বলিউড এবং দক্ষিণ ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে যে ঠান্ডা লড়াই চলছে তাই এখনও শেষ হয়ে যায়নি। এর আগেও মহেশ বাবু বলিউডকে সামর্থ্যহীন বলে ছোট করেছেন। সেই বিবৃতি নিয়ে যে তোলপাড় হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে তা কিছুটা স্তিমিত হওয়ার সাথে সাথে এই ঘটনা আরো একবার পুরোনো ঘটনাকে যে উসকে দেবে তা বলাই বাহুল্য।

তবে যে যাই বলুক না কেন মহেশ বাবু বারবার একটাই কথা বলেছেন সকলের উদ্দেশ্যে, তিনি কখনোই বলিউডকে ছোট করতে চাননি। তিনি তেলেগু ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে ফোকাস করার কথা বলেছেন বারবার। এতে যদি কেউ অপমানিত বোধ করে তাহলে তার কিছু করার নেই।