দেশনতুন খবরবিশেষ

নীরব মোদির বিরুদ্ধে গ্রেফতারির পরোয়ানা জারি করল লন্ডনের আদালত।

লন্ডনের আদালত এবার নীরব মোদির বিরুদ্ধে গ্রেফতারির পরোয়ানা জারি করলো। তার বিরুদ্ধে 2 মিলিয়ন মার্কিন ডলার অর্থাৎ ভারতীয় মুদ্রায় যা দাঁড়ায় 1 লাখ 37 হাজার কোটিরও বেশি আর্থিক কেলেঙ্কারির অভিযোগ রয়েছে। গতকাল সোমবার এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট আবেদনের ভিত্তিতেই পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক প্রতারণা কান্ডের প্রধান নায়ক কে জেলে ভরার নির্দেশ দিল ব্রিটিশ আদালত।পিটিআই প্রকাশিত খবর অনুযায়ী জানতে পারা গেছে নীরব মোদী কে গ্রেফতার করার নির্দেশ দিয়েছে ব্রিটেনের ওয়েস্টমিনিস্টার ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট। চলতি মাসের শুরুতে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট তরফে জানানো হয়েছিল ব্রিটেনে স্বরাষ্ট্র সচিব সাজিদ জাবিদ, নীরব ও পিএনবি প্রতারণা ইস্যুতে ভারতের বক্তব্য তুলে ধরেন।
আর সেই অনুযায়ী নীরব এর বিরুদ্ধে যাবতীয় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছিলেন ইডি। প্রসঙ্গত কয়েকদিন আগে ব্রিটেনের এক সারির দৈনিক জানিয়েছিলেন ভারত থেকে পালিয়ে লন্ডনে আছেন নীরব। আর সেখানেই তিনি বিলাসবহুল জীবন যাপন করছেন অ্যাপার্টম্যান্টে থাকছেন ‌। আর শুধু তাই নয় সেখানে তিনি নিজের হীরের ব্যবসাও করছেন।কয়েক দিন আগে প্রকাশিত লন্ডনের একটি সংবাদমাধ্যম দ্য টেলিগ্রাফ আরো এক ধাপ এগিয়ে এও জানায় যে লন্ডনের নীরব মোদী যে বাড়িতে থাকেন তার মাসিক ভাড়া 17,000 পাউন্ড যা ভারতীয় মুদ্রায় দাঁড়ায় 15 লাখেরও বেশি। ইডি ও সিবিআই দুই কেন্দ্রীয় সংস্থায় নীরব মোদী ও তার আত্মীয় মেহুল চক্সি এর বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংকের প্রতারণা এবং অবৈধ আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ রয়েছে তাদের দুজনের বিরুদ্ধে।

আর এর মধ্যেই ইডি নিরব এর বিরুদ্ধে অবৈধ আর্থিক লেনদেনের আইনে মামলা দায়ের করেছে। শুধু তাই নয় একইসঙ্গে ভারতে নীরবের 489.76 কোটি টাকার সম্পত্তি কেউ বাজেয়াপ্ত করেছে তদন্তকারী অফিসাররা।

Related Articles

Back to top button