20 এপ্রিলের পর যেসব কাজকর্ম করা যাবে, রইল তার সমস্ত তালিকা…

14 এপ্রিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ফের 3 রা মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়ানোর ঘোষণা করেন। এরপরে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে একটি তালিকা প্রকাশ করা হয় যাতে দেওয়া আছে কোন ধরনের অর্থনৈতিক কার্যকলাপ করা যাবে 20 এপ্রিলের পর। এক্ষেত্রে কৃষক এবং দিনমজুরদের কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু জায়গা চিহ্নিত করে কাজের জন্য খুলে দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে 20 এপ্রিল এর পর কোন ধরনের কাজের অনুমতি মিলবে আর কোন ধরনের কাজের অনুমতি মিলবে না। সরকারের তরফ থেকে 20 এপ্রিল এরপর যে সমস্ত কাজ করবে অনুমতি দেওয়া হয়েছে তার একটি লক্ষ্য যাতে কৃষি এবং কৃষি জাতীয় কাজ পুরোদমে চলে। এছাড়া দিনমজুর এবং অন্যান্য শ্রমিকদের যাতে কাজের সুযোগ হয়। আসুন এবার দেখে নেওয়া যাক 20 এপ্রিলের পর কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে কী কী কাজের অনুমতি দেওয়া হয়েছে – 1. সমস্ত রকম পণ্য পরিবহনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে।

2. কৃষি কাজের মধ্যে রয়েছে কৃষিজাত পণ্য আহরণ, সার উৎপাদন এবং বন্টন এছাড়াও রয়েছে মৎস্য চাষ, পশুপালন পোলট্রি এবং চা-কফি ও রাবার প্ল্যান্টেশনের কাজ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
3. উৎপাদন ক্ষেত্র সহ অন্যান্য শিল্প প্রতিষ্ঠান যেখানে অ্যাক্সেস কন্ট্রোল এর অনুমতি দেওয়া আছে এসইজেডএ, ইওইউ, শিল্পতালুক এবং ইন্ডাস্ট্রিয়াল টাউনশিপ। তবে সরকার থেকে জানানো হয়েছে যে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এবং আরো নিয়মাবলী মেনে যেন সমস্ত কিছু কাজকর্ম চলে।

এছাড়াও অত্যাবশ্যকীয় পণ্যের উৎপাদন এবং প্যাকেজিং এর ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া হয়েছে।  তেল উৎপাদন এবং কয়লা খনির কাজেও অনুমতি দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফ থেকে। এর পাশাপাশি আর্থিক ক্ষেত্রে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ কাজ যেমন আর বি আই, ব্যাংক, এটিএম এবং বীমা কোম্পানিগুলো খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।
4. গ্রামীণ অর্থনীতিকে সচল থাকে সেই দিকেও সরকার লক্ষ্য রেখেছে। এরমধ্যে রয়েছে খাদ্য প্রক্রিয়াকরন শিল্প, রাস্তা নির্মাণ, সেচ প্রকল্প সহ আরও অন্যান্য কাজের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। 5. ডিজিটাল অর্থনীতি পরিষেবা একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আমাদের দেশে। সেইমতো ই-কমার্স অপারেশন, আইটি এবং আইটি এনাবেল সার্ভিস, সরকারি কাজ কর্মের জন্য ডেটা এবং কল সেন্টার, অনলাইন শিক্ষকতা সহ আরো অনেক কিছু অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

6. সকল স্বাস্থ্য পরিষেবা এবং সামাজিক ক্ষেত্রে কাজকর্ম চলবে। পাবলিক ইউটিলিটির কাজ হবে এবং এর পাশাপাশি অত্যাবশ্যকীয় পণ্য পরিবহন হবে। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারের স্থানীয় প্রশাসনের অফিস খোলা থাকবে।প্রসঙ্গত এক্ষেত্রে সিনেমা হল, শপিং মল, কমপ্লেক্স, জিম, স্পোর্টস কমপ্লেক্স, সুইমিং পুল এগুলি আগামী 3 মে পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। এর পাশাপাশি লকডাউন চলাকালীন সময় সমস্ত রকম সামাজিক, রাজনৈতিক, খেলাধুলা, ধর্মীয় অনুষ্ঠান, ধর্মীয় স্থান, প্রার্থনার জায়গাগুলি জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হবে না। এর পাশাপাশি কারো যদি এই সময় মৃত্যু ঘটে যায় তাহলে সে ক্ষেত্রে তার অন্তিম সংস্কারে  কুড়িজন এর থেকেও কম লোকের যোগদান করার অনুমতি রয়েছে।

Related Articles

Close