১ জানুয়ারি থেকে আসছে নতুন জীবন বীমা পলিসি, থাকছে একাধিক সুবিধা

করোনা আবহে মানুষের আর্থিক অবস্থা শোচনীয়৷ তাই ভবিষ্যতে মানুষ সঞ্চয় নিয়েও আগের থেকে বেশি ভাবনাচিন্তা করছে। অসুস্থ হলে যাতে চিকিৎসা করার টাকাটুকু থাকে তা নিয়েও অনেকেই এখন ভাবছেন৷ এই সময় স্বাস্থ্যখাতে খরচ এবং তার ব্যয়ভার বহন মানুষকে চিন্তিত করে তুলেছে। তাই মানুষের চিন্তা দূর করতে বাজারে আসছে সরল জীবন বীমা পলিসি।

নতুন বছরের শুরুর দিন অর্থাৎ পয়লা জানুয়ারি থেকে এই সরল জীবন বীমা পলিসি চালু করছে ইনসিওরেন্স রেগুলেটরি এন্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। এর আগে করোনা কবচ, করোনা রক্ষক এবং আরোগ্য সঞ্জীবনীর মত জীবন বীমা পলিসি গুলি চালু থাকলেও এবার আসছে সরল জীবন বীমা পলিসি।

জীবন বীমা

18 থেকে 65 বছর পর্যন্ত যে কেউ এ পলিসির সুবিধা নিতে পারবেন৷ তবে 70 বছরের পর থেকে ম্যাচিউরিটি পিরিয়ড থাকবে না। পলিসি টার্ম 5 থেকে 40 বছর। 5 লক্ষ থেকে 25 লক্ষ পর্যন্ত রিটার্ন পেতে পারেন এই পলিসি স্কিমে৷ অন্যান্য লাইফ ইনসিওরেন্স স্কিমের তুলনায় এটি সরল। এই সরল জীবন বীমা পলিসি কেনার পর কোনো ঝক্কি ঝামেলা পোহাতে হবে না।

টার্ম ইন্সুরেন্স নিয়ে যাদের তেমন ধারনা নেই তারাও সহজেই এই পলিসির সুবিধা নিতে পারবেন। করোনা পরিস্থিতিতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে এই সরল জীবন বীমা পলিসি অনলাইনেও কিনতে পারবেন৷ এজেন্টদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে বোঝানোর বদলে ডিজিটাল প্ল‍্যাটফর্মেই জানা যাবে সমস্ত তথ্য।

আজ রাত থেকেই জারি হতে পারে নাইট কারফিউ, চিঠি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের

জীবন বীমা পলিসি

অনলাইনে প্ল্যানটি কিনলে প্রিমিয়ামে থাকবে কুড়ি শতাংশ ছাড়। আপনার বার্ষিক আয় কত তার ওপর ভিত্তি করে এই পলিসিতে আপনার কোনো সমস্যা হবে না৷ নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেণীর মানুষ যাদের দৈনিক আয় খুবই স্বল্প তারাও সহজেই এই জীবন বীমা পলিসি সুবিধা নিতে পারবেন।

প্রিমিয়াম দিতে পারবেন সাধ্য মত। তাই গ্রামাঞ্চলের মানুষের জন্য কিংবা অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মীদের জন্য এই সরল জীবন বীমা পলিসি হতে পারে আশীর্বাদ। সরল জীবন বীমা পলিসির সলভেন্সি রেশিও এবং ক্লেইম সেটলমেন্ট রেশিও সম্বন্ধে উপযুক্ত খোঁজখবর নিতে হবে। প্রয়োজনে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়াই বাঞ্ছনীয়।