এবার কথা হোক যুদ্ধক্ষেত্রেই, হুঁশিয়ারি গম্ভীরের…

গৌতম গম্ভীর নিজের দেশকে কতটা ভালোবাসেন তা তিনি এর আগে অনেকবার প্রমাণ করে দিয়েছেন। জঙ্গি হামলার ঘটনায় তিনি ক্ষুব্দ। দেশপ্রেমের আরেকবার নজির গড়লেন গৌতম গম্ভীর। তবে এবার তিনি কোন মিষ্টি কথা বলেননি। পুলওয়ামায় বৃহস্পতিবারের জঙ্গি হামলায় ক্ষুব্দ হয়ে ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর জানান, অনেক হয়েছে। এবার পাকিস্তানকে কড়া ভাষায় জবাব দেওয়ার সময় চলে এসেছে।এই সন্ত্রাসবাদি হামলায় নিহত শহিদের প্রতি গৌতম গম্ভীর সহমর্মিতা জ্ঞাপন করে তিনি বলেন, পাকিস্তান আমাদের সুযোগ করে দিয়েছে এবার আমাদের উচিত কড়া ভাষায় ওদের পাল্টা জবাব দেওয়া। জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামার অবন্তীপুরায় এদিন ভয়ানক জঙ্গি হামলায় জাওয়ানদের মৃতের সংখ্যা 44 এর বেশি ছাড়িয়ে গেছে।

সিআরপিএফ কনভয়ে সবচেয়ে বড় সন্ত্রাসবাদি হামলায় মৃতের সংখ্যা 44 জন। এরকম সন্ত্রাসবাদী হামলা এর আগে হয়নি। আর ঠিক এই সময় 2011 এর বিশ্বকাপ ফাইনালের ভারতের জয়ের পিছনে অন্যতম নায়ক গৌতম গম্ভীর আর চুপ করে থাকতে পারলেন না। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে প্রতিবেশী রাষ্ট্র কে কড়া বার্তা দিলেন ।গম্ভীর ক্ষুব্ধ হয়ে টুইটারে লিখেন,’ বিচ্ছিন্নতা বাদীদের সঙ্গে কথা বলা যাক। পাকিস্তানের সঙ্গে আলোচনা করা হোক। তবে এই আলোচনার টেবিলে না করে যুদ্ধক্ষেত্রে করা হোক। অনেক হয়েছে আর নয়।’ বৃহস্পতিবার দুপুরে অবন্তীপুরায় সেনাদের কনভয়ে সন্ত্রাসবাদি হামলা চালায় জইশ-ই- মোহাম্মদ জঙ্গি সংগঠন। এই বিষয়টি নিয়ে এনএসএ অজিত দোভালের সঙ্গে কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। অবন্তীপুরায় দুর্ঘটনাস্থলের দিকে রওনা হয়েছে এনআইএ এর টিম।

ভয়াবহ এই জঙ্গী হামলার পরে গোটা কাশ্মীর জুড়ে কড়া নিরাপত্তা রয়েছে। সমস্ত ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করা হয়েছে। ইন্ডিয়া-পাকিস্তান সীমান্ত জুড়ে রেড এলার্ট জারি হয়েছে বর্তমানে। ভাবে জঙ্গি হামলার পর এই ট্যুইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিন তিনি ট্যুইটে লিখেন, ‘ পুলওয়ামায় সিআরপিএফ জওয়ান দের উপর হামলা খুবই নিন্দনীয়। আমাদের সাহসী জাওয়ানদের বলিদান কোনদিন ব্যর্থ হতে দেব না। শহীদদের পরিবারের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দাঁড়াবে গোটা দেশ। আহত জাওয়ানদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী।