মোদীকে প্রাণে মারার হুমকি দেওয়া পাকিস্তানি পপ গায়িকার ন্যুড ভিডিও এবার সোশ্যাল-মিডিয়ায় ফাঁস

কিছুদিন আগে আপনার দেখে থাকবেন সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও খুব দ্রুত গতিতে ভাইরাল হয় যেখানে এক পাকিস্তানি পপ গায়িকা রবি পীরজাদা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সাপ, কুমির নিয়ে প্রাণে মারার হুমকি দিতে দেখা গিয়েছিল। আর এরকম ঘটনা ঘটার পরেই বেশি সময় লাগেনি তার সোশ্যাল-মিডিয়ায়-ভাইরাল হতে এই পাকিস্তানি পপ গায়কের। তবে এবারও একবার এই পাকিস্তানি পপ গায়িকা রাবি পীরজাদা ইন্টারনেটের শিরোনামে উঠে এলেন।

তবে এবার কোন প্রকার প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণে মারার হুমকি নয় এবার উঠে এসেছেন ওনার অশ্লীল ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়ার ফলেই। শুধু তাই নয় পাকিস্তানের অনেক কয়েকটি টুইটার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে এই ভিডিও ভাইরাল করা হয়েছে। তবে টুইটারে এই ভিডিও আপলোড হওয়ার পরেই টুইটার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে এই ভিডিওর পোস্ট কর্তাদের অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেওয়ার সবধানী বার্তা জারি করেছেন।

এক পাকিস্তান সংবাদমাধ্যম অনুযায়ী জানতে পারা গেছে গত বৃহস্পতিবার দিন এই পাকিস্তানি পপ গায়িকা একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় খুব ভাইরাল হয় আর সেটিকে পাকিস্তানের মানুষ প্রচুর পরিমাণে শেয়ার করতে থাকে। তবে এই ভিডিও ভুয়ো না সত্যি! এই নিয়ে রয়েছে এখনো মতবিরোধ। তবে একথা বললে ভুল হবে না যে এর আগে যখন এই পপ গায়িকা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে খুন করার হুমকি দিয়েছিলেন তখন থেকেই তার জীবনের খারাপ দিনে শুরু হয়ে গেছে।

মাস খানেক আগেই লক্ষ্য করা যায় এই পকিস্থানি পপগায়িকা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে লক্ষ্য করে অশ্লীল গালিগালাজ ও প্রাণে মারার হুমকি দিতে। মনে করিয়ে দিই পাকিস্তানি পপ গায়িকা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হুমকি দিয়ে বলেছিলেন যে, কাশ্মীর যদি না দেওয়া হয় তাহলে তিনি মোদীর ওপর সাপ, কুমির ছেড়ে দেবেন। ভারত সরকার যখন জম্মু- কাশ্মীর থেকে 370 ধারা অপসারণ করেন তখনই এই ইস্যুতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে হুমকি দিয়েছিলেন এই পাকিস্তানি পপগায়িকা। তারপর লাহোরে বিউটি সেলুনে বিদেশি জন্তুকে পোষা প্রাণী হিসেবে রাখার অভিযোগে এই পাকিস্তানি পপ গায়িকা বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া শুরু হয়েছিল।

এই নিয়ে পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের বন্যজীবন সংরক্ষণ ও উদ্যানতত্ত্ব বিভাগ রবি পীরজাদার বিউটি সেলুনে বিদেশি প্রাণী রাখার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ ও করেছে। শুধু তাই নয় অধিদপ্তর বন্যজীবন আইন লঙ্ঘনের জন্য লাহোরের স্থানীয় আদালতে রবি পীরজাদার বিরুদ্ধে একটি চালানও পেশ করা হয়েছে।তবে এবারও তিনি আরও একবার শিরোনামে উঠে এলেন শুধু পার্থক্য এটা তিনি কাউকে প্রাণে মারার হুমকি দেয়নি বরং এবার উনার নিজেরই অশ্লীল ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ার কারণেই উনি এবার শিরোনামে উঠে এলেন। যদিও এখনো পর্যন্ত পাওয়া তথ্য অনুযায়ী জানতে পারা গেছে এই বিষয়ে উনি পাকিস্তানের সাইবার ক্রাইম ডিপার্টমেন্টে একটি অভিযোগ পত্র ও জমা করেছেন।

https://youtu.be/22FXggC33e8