দেশনতুন খবরবিশেষ

‘যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত তেজস,’ বললেন বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়া…

গতকাল বুধবার বায়ুসেনা প্রধান Aero ইন্ডিয়া শো এর প্রথম দিনেই বলা হল যুদ্ধক্ষেত্রের জন্য একেবারে প্রস্তুত হয়ে গেছে ভারতের লাইট কম্বাট এয়ারক্রাফট তেজস। আর প্রথম দিনে অপারেশনাল ক্লিয়ারেন্স দেওয়া হল তেজস মার্ক 1 বিমানকে।এই দিন সেই ছাড়পত্র সার্টিফিকেট বায়ুসেনা প্রধান বিএস ধানোয়ার হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। বিএস ধানুয়া জানিয়েছেন এই এয়ারক্রাফট এখন যুদ্ধের জন্য সম্পূর্ণ প্রস্তুত।এক প্রকৃত যোদ্ধার মতো আচরণ করেছিল বলে উল্লেখ করেছেন ধানুয়া। আপনাদের বলে রাখি বায়ুসেনা সম্প্রতিক প্রদর্শনী “বায়ু শক্তি” ও 2018 গণশক্তি হড়ায় নিজের দক্ষতা প্রমাণ দিয়েছিল এই তেজস।

তবে তিনি স্পষ্ট উল্লেখ করে দিয়েছেন এটা এক প্রকার মাইলস্টোন তেজস মাক ওয়ানে পরেও তেজস মার্ক টু এর ও প্রয়োজন হবে। বায়ু সেনা 50 হাজার কোটি টাকা খরচ করে 83 টি তেজস যুক্ত করতে চায়। এই দুজন মিসাইলের মাঝ আকাশে রিফুয়েলিং করার ক্ষমতা ও আকাশ থেকে মাটিতে বোমা নিক্ষেপ করার ক্ষমতা পরীক্ষা করেই ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।বায়ু সেনা প্রধান এর আগেও বলেন পাকিস্তানের হাতে যদি jf-17 থাকে তাহলে ভারতের হাত রয়েছে তেজস।এছাড়াও তিনি বলেন জে এফ 17 পাকিস্তানের বর্তমান প্রযুক্তির হতে পারে তবে তাকে টেক্কা দেওয়ার জন্য ভারতের কাছে তৈরির রয়েছে তেজস যা ভবিষ্যতেও কাজে লাগবে।

আপনাদের সুবিধার্থে বলে রাখি প্রায় সাড়ে 13 মিটার লম্বা এবং 12 টন ওজনের তেজস যুদ্ধবিমান গুলির সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় 1,350 কিলোমিটার। এছাড়াও এই এয়ারক্রাফটি ফোর্থ জেনারেশন সম্পন্ন। ভারতের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি যুদ্ধবিমান তেজস নিঃসন্দেহে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক গুরুত্বপূর্ণ হাতিয়ার।এছাড়াও এই তেজস এয়ারক্রাফটি ভারতের বায়ু সেনার মিগ 21 এবং মিগ 27 বিমানের অভাব পূরণ করছে।

Related Articles

Back to top button