দেশনতুন খবরবিনোদনবিশেষ

নকল করে বেশিদিন সাফল্য ধরে রাখা যায় না,রানু সহ সকল নতুন শিল্পীদের পরামর্শ ভারতের নাইটিঙ্গেল লতাজীর..

লতা মঙ্গেশকরকে জানেন না এমন কোন ভারতীয় নেই বললেই চলে। আর এই লতা মঙ্গেশকারের গলার নকল করে “এক প্যার কা নাগমা হ্যায়”- গান গেয়ে ফেসবুকে রাতো রাত ভাইরাল হয়েছিলেন রানু মন্ডল। এখন সেই রানু মন্ডল ফেসবুক থেকে পৌঁছে গিয়েছেন বলিউডে। তাকে গাইতে দেখা যাচ্ছে হিমেশ রেশমিয়া আগামী ছবিতে। তবে এখন প্রশ্ন হল লতা মঙ্গেশকর কি নিজে শুনেছেন সেই রানু মন্ডল এর গলার গান? যদি শুনে থাকেন তাহলে কেমন লেগেছে তার রানু মন্ডলের কণ্ঠস্বর?

আইএএনএসকে সাক্ষাত্কারে ভারতের নাইটিঙ্গেল লতাজীর প্রতিক্রিয়া, ‘আমার নাম ও কাজের জন্য কারও ভালো হলে, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করি।’ যারাই সুরচর্চা করে থাকে তারাই প্রথম দিন থেকেই লতা মঙ্গেশকর হতে চায়। কিন্তু যাইহোক আসল ও নকল মধ্যে কিছুটা যেন পার্থক্য থেকেই যায়। আর এই কথায় লতাজীও মনে করে দিলেন এই দিন। এই দিন তিনি বলেন নকল করে বেশিদিন সাফল্য ধরে রাখা যায় না।

তিনি বলেন বর্তমান সমাজের নতুন গায়ক-গায়িকারা এখন কিশোর দা, মোহাম্মদ রফি, মুকেশ ভাইয়া বা আশা ভোঁসলের গান গেয়ে খুব স্বল্প সময়ের মধ্যে সকলের দৃষ্টি নিজের দিকে আকর্ষণ করে থাকে। কিন্তু এটা দীর্ঘস্থায়ী হয় না।” বিভিন্ন রিয়েলিটি শো’র প্রসঙ্গে লতামঙ্গেসকার কে বলতে দেখা গেছে অনেকেই খুব সুন্দর গান করেন তবে তাৎক্ষনিক সাফল্যের পর ক’জন ধরে থাকে সেই মঞ্চ?তিনি বলেন আমি তো শুধু শ্রেয়া ঘোষাল ও সুনিধি চৌহান কে মনে রেখেছি।

নতুন সুরশিল্পীদের উদ্দেশ্যে তিনি পরামর্শ দিয়ে বলেন সকলে নিজের পরিচয় তৈরি করো। আমারও অন্যদের চিরনবীন গানগুলি নিশ্চয়ই গাইবে তবে একটা সময় এরপর নিজের গান ও পরিচিতি তৈরি করা দরকার। তা না হলে এই সমাজের ভিড়ের মধ্যে নিজের পরিচয় হারিয়ে ফেলবে। আর এর উদাহরণ হিসাবে তিনি নিজের বোন আশা ভোঁসলের এই কথা তুলে ধরেন, এদিন তিনি বলেন আশা যদি নিজের মতো করে গান না গাইতো তাহলে চিরকাল আমার ছায়া হয়ে থেকে যেত।

নিজের প্রতিভা থাকলে যেকোনো উচ্চ পর্যায়ে নিজের নাম উজ্জ্বল করতে পারবে যার নজির স্বয়ং আশা।রানাঘাটের রানু মন্ডল রানাঘাট স্টেশনে লতা মঙ্গেশকরের গান গেয়ে প্রথমে নজরে এসেছিলেন।সেই রানাঘাট স্টেশনেই জীবন কাটাতেন রানু।সেখানকার নিত্যযাত্রীদের আবদারের গান শোনাতেন তিনি সেখান থেকেই ফেসবুকে ভাইরাল হন রানু মন্ডল। তারপর একটি সর্বভারতীয় চ্যানেলের রিয়েলিটি শোতে ও টাকে দেখতে পাওয়া যায়। সেখানেও তিনি ‘এক প্যার কা নাগমা হ্যায়…’ গানটি গান। এই শো তে রানুর গান শোনার পর তাঁকে ওই রিয়েলিটি শোয়ে নিজের ছবিতে গান গাওয়ার প্রস্তাব দেন সুরকার হিমেশ রেশমিয়া। হিমেশের নতুন ছবি ‘হ্যাপি হার্ডি ও হীর’-এ ইতিমধ্যেই গেয়েছেন রানু। আরও একটি গান রেকর্ড করেছেন সুরকার।

Related Articles

Back to top button