অবশেষে মুক্তি পেলেন ছত্রিশগড়ে মাওবাদীদের হাতে বন্দি কোবরা কমান্ডোর

গত শনিবার ৩ এপ্রিল ছত্রিশগড় বিজাপুরে মাওবাদীদের আক্রমণে ২৩ জন ভারতীয় সেনা নিহত হয়। সেইসঙ্গে কোবরা কমান্ডো রাকেশ্বর সিং মিনহাসকে মাওবাদীরা অপহরণ করেছিল। অবশেষে জম্মু-কাশ্মীরের এই ছেলেটি নিষ্কৃতি পেল মাওবাদীদের হাত থেকে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় শনিবার মাওবাদী এবং ভারতীয় জওয়ানদের সংঘর্ষে ২৫- ৩০ জন মাওবাদীও প্রাণ হারায়। এক সংবাদ মাধ্যমের কাছ থেকে রাকেশ্বর সিং এর মেয়ের বাবার জন্য মুক্তির আবেদনের আর্তনাদ শুনে কেঁদে উঠেছিল গোটা মিডিয়াবাসী। ৫ বছরের ওই ছোট্ট মেয়েটি মাওবাদীদের উদ্দেশ্যে বলেছিল নকশাল কাকু যেন তার বাবাকে ছেড়ে দেয়।

ওই জোয়ানের মা থেকে স্ত্রী সকলেই কেন্দ্র সরকার এবং সেনাবাহিনীর কাছে আবেদন করেছিলেন যে তাঁরা যেন তাঁদের এই অমূল্য রতনটিকে মাওবাদীদের হাত থেকে ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করে। এই জওয়ানের স্ত্রী মিনু জানিয়েছিলেন যে তিনি তাঁর স্বামীর এক সহকর্মীর কাছ থেকে প্রথম জানতে পারেন যে তাঁর স্বামী নিখোঁজ। সোমবার মিনুর কাছে একটি ফোন আসে যে ফোনে বলা হয় মিনু যেন ভিডিওর মাধ্যমে তাঁর স্বামীর মুক্তির আবেদন করেন। তাঁর স্বামীকে নাকি মাওবাদীরা অপহরণ করেছে। তৎক্ষণাৎ মেনু ভিডিওর মাধ্যমে তাঁর স্বামীর মুক্তির আবেদন করেন।

ছত্রিশগড়ের ওই মাওবাদী এলাকায় ক্রমাগত ভারতীয় জওয়ানরা আস্তে আস্তে নিজেদের ক্যাম্পের সংখ্যা বাড়াতে থাকে। ওই এলাকার ৬০০ বর্গ কিলোমিটার এলাকা ধীরে ধীরে নিজেদের দখলে নিয়েছে ভারতীয় জওয়ানরা। ভারতীয় জওয়ানদের এই এলাকা দখলর ফলেই মাওবাদীরা পিছু হটতে বাধ্য হয়েছে।