বাংলাদেশের পদ্মা সেতুকে গুনে গুনে দশে দশ গোল দেবে ভারতের এই ভূপেন হাজারিকা সেতু

দুই বাংলার কাছে এখন শুধুমাত্র একটাই আলোচনার বিষয় পদ্মা সেতু। গোটা বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দিয়েছে এই সেতু। বাংলাদেশ সরকারের দাবি অনুযায়ী, ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধের পর এরকম একটি বৃহৎ সেতু নির্মাণ বাংলাদেশের সবথেকে চমৎপ্রদ একটি ঘটনা। পদ্মা সেতু তৈরি হওয়ার ফলে কলকাতা থেকে ঢাকা দূরত্ব প্রায় দেড়শ কিলোমিটার কমে গেল। তবে পদ্মা সেতু নিয়ে যে পরিমাণ চর্চা হচ্ছে সারা বিশ্ব জুড়ে, কেমন হয়তো আলোচনা করা হয়নি ভারতের দ্বিতীয় সেতু ঢোলা সাদিয়া তথা ভূপেন হাজারিকা সেতু নিয়ে।

Memorable celebration planned for Padma Bridge inauguration

এই সেতুটি আক্ষরিক অর্থে পদ্মা সেতুর তুলনায় অনেকটাই এগিয়ে রয়েছে। পদ্মা সেতুর তুলনায় অনেকটাই বড় এই ভূপেন হাজারিকা সেতু। এই সেতু তৈরি করতে সময় এবং খরচ দুটোই কম লেগেছে পদ্মা সেতুর তুলনায়। অসমের তিনসুকিয়া জেলার স্বাদিয়াতে ব্রহ্মপুত্র নদীর উপর তৈরি করা হয়েছে ৯.১৫ কিলোমিটার লম্বা এই হাজারিকা সেতু। এই বিশালাকার সেতু তৈরি করতে লেগেছে মাত্র ছয় বছর।

PM inaugurates India's longest Bhupen Hazarika bridge in Assam - Times of India

অপরদিকে পদ্মা সেতু তৈরি করতে চীন এবং কোরিয়ান ইঞ্জিনিয়ারদের লেগে গেল প্রায় ১২ বছর। অর্থাৎ পদ্মা সেতু ভূপেন হাজারিকা সেতুর তুলনায় দৈর্ঘ্যে ছোট হলেও এটি তৈরি করতে সময় লেগেছে প্রায় দ্বিগুণ। শুধু তাই নয় ভূপেন হাজারিকা সেতু তৈরি করতে খরচ হয়েছিল মোট ২,০৫৬ টাকা ও পদ্মা সেতু তৈরি করতে বাংলাদেশের খরচ হয়েছে প্রায় ৩০ হাজার কোটি বাংলাদেশি টাকা।

শুধুমাত্র এখানেই শেষ নয়, ভূপেন হাজারিকা সেতুতে চলাচল করার জন্য যাত্রীদের কোন রকম টোল ট্যাক্স দিতে হয় না কিন্তু পদ্মা সেতু চালু হওয়ার দিন থেকেই যাত্রীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টোল ট্যাক্স নেওয়া হচ্ছে, যা অন্তত ৬৫ বছর নেয়া হবে বলে মনে করা হচ্ছে।