নতুন খবরলাইফ স্টাইল

দৈনন্দিন জীবনে ভাতের তুলনায় রুটি খাওয়ার উপকারিতাগুলো জেনে রাখুন।

আমাদের বাংলায় রয়েছে অনেক রকমের মানুষ তাই আমাদের খাওয়া দাওয়ার রুচি ও ভিন্ন রকম। কিন্তু আমাদের মধ্যে 1 টি মিল প্রায় সকলের মধ্যে লক্ষ্য করা যায় যে আমরা সকলে রাতে রুটি খেতে পছন্দ করি ভাত খাওয়ার তুলনায়।পাঞ্জাব,হরিয়ানা তে ভাতের থেকে রুটির প্রাধান্য অনেক বেশি রুটি খাওয়া হয়। তবে বাঙ্গালীদের জন্য সকালটা ভাতের নামে তোলা থাকলেও রাত্রে কিন্তু রুটি চাই অনেকেরই। রাতের বেলা যদি রুটি কষা মাংস ,রুটি সবজি পাওয়া যায় তবে মনে হয় খুব কম মানুষই লোভ আটকাতে পারে, না আটকাতে পারারই কথা কারণ তার স্বাদ অমৃত সমান। আজকের প্রতিবেদনে আমরা জানতে চলেছি রাতে রুটি খাওয়ার কিছু উপকারিতা বাজে উল্লেখ লক্ষ্য পরিবর্তনগুলি লক্ষ্য করা যায় ভাত খাওয়ার পরিবর্তে রুটি খেলে তার সম্বন্ধে, চলুন শুরু করা যাক আজকের প্রতিবেদন এবং জেনে নিন রুটি খাওয়ার উপকারিতা:-

১) আমাদের মধ্যে অনেকেই ডায়াবেটিসে ভুক্তভোগী তাই আমাদের খাওয়া দাওয়া বিবেচনা করে খেতে হয়, রুটিতে গ্লাইসেমিক ইনডেক্স এই উপাদানটি কম থাকায় ডায়াবেটিস রোগীদের ক্ষেত্রে রুটিন বিশেষ উপকারী দিনের বেলায়ও ডায়াবেটিস রোগীরা ভাতের পরিবর্তে রুটি খেলে বিশেষ উপকার দেখা যায়।

২) যারা দিনের পর দিন মোটা হয়ে যাচ্ছেন তাদের ভাতের বদলে রুটি গ্রহণ করলে হয়তো কিছুটা উপকার হবে।কারণ ভাতের তুলনায় রুটিতে কার্বোহাইড্রেটের পরিমাণ অত্যন্ত কম এবং ফ্যাট না বরাবর তাই ওজন রুখতে হলে রাতের মেনু তে রুটি গ্রহণ করতে শুরু করি।

৩) রুটিতে ফ্যাট কম থাকায় শরীর দেহের স্বাদ ভেঙ্গে ব্যবহার করতে শুরু করে যার ফলে শরীরে ফ্যাটের পরিমাণ কমতে থাকে।

৪) রুটি খেলে রক্ত চাপ কম থাকে বা নিয়ন্ত্রণে থাকে যার ফলে হার্ট অ্যাটাক, স্ট্রোক ইত্যাদি মারাত্মক রোগ গুলি থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৫)শরীর গঠনের ক্ষেত্রে এসব খনিজ উপাদান ভিটামিন প্রয়োজন তা রুটিতে অনেক বেশি পরিমাণে পাওয়া যায় তাই রুটি গ্রহণ করলে শরীরে এই সব উপাদান প্রবেশ এর মাধ্যমে আমাদের শরীর সুস্থ থাকে।

৬)রুটিতে অতিরিক্ত পরিমাণে ফাইবার থাকে যা আমাদের মেটাবলিজম কে ফাস্ট করে এছাড়াও বদহজম, গ্যাস, অম্বল, বুকে জ্বালার মতো সমস্যা থেকে অনেকটা রেহাই পাওয়া যায়।
তাই যারা এই সব সমস্যায় ভুগছেন তারা রাতের মেনুতে ভাত বা অন্যান্য কোন খাদ্যের পরিবর্তে রুটি খান সবজি সাথে অথবা কম তেলের তৈরি মাংস যাতে প্রোটিনের পরিমাণ বেশি থাকে যেমন চিকেন এর সাথে ,সুস্থ্যজীবন অনুভব করুণ।।

Related Articles

Back to top button