Skip to content

আজ থেকে ভারতে চালু হয়ে গেল ডিজিটাল রুপি, জানুন কী কী সুবিধা পাবেন আপনি

অবশেষে খুচরো বাজারের জন্য ই রুপি লঞ্চ করতে চলেছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (Reserve Bank of India)। সাধারণ মানুষের হাতে আসতে চলেছে এই রিটেল ডিজিটাল রুপি আগামীকাল থেকেই। যদিও বর্তমানে এই ডিজিটাল রুপি সর্বত্র এক সঙ্গে চালু হবে না। তবে এই ডিজিটাল রুপি জিনিসটি কি? সেটাই এখনও বুঝে উঠতে পারেনি সাধারণ মানুষ। কিভাবে লেনদেন করা হবে, কি সুবিধা অসুবিধা আছে লঞ্চ হবার আগের দিন সকলের জেনে নেওয়া খুব জরুরী।

ডিজিটাল রুপি কিভাবে ব্যবহার করবেন?

ডিজিটাল রুপি হতে চলেছে নগদ অর্থ প্রদানের একটি বিকল্প অপশন। নগদ টাকা দেওয়ার বদলে আপনি ডিজিটাল রুপিতে পেমেন্ট করতে পারবেন এবার। দেশের সমস্ত সরকারি, ব্যবসায়ী এবং অন্যান্য ক্ষেত্রে আপনি এই ডিজিটাল রুপি ব্যবহার করতে পারবেন। বিশেষজ্ঞদের মতে ডিজিটাল রুপি চালু হয়ে যাবার পর ক্যাশের ব্যবহার আরো বেশি কমে যাবে।

কিভাবে কাজ করবে ডিজিটাল রুপি?

ই রুপি একটি ডিজিটাল টোকেন হিসেবে কাজ করবে। এটি রিজার্ভ ব্যাংক প্রদত্ত নোটের ডিজিটাল ভার্সন হতে চলেছে। ব্যাংকের মাধ্যমে ডিজিটাল রুপির ডিস্ট্রিবিউশন চালু করতে চলেছে আর বি আই। এটি টোকেন হিসেবে কাজ করবে। মোবাইল ওয়ালেটের মাধ্যমেও আদান-প্রদান করা যাবে। একজন ক্রেতা এবং অপরজন ব্যবসায়ী হলেও এই ডিজিটাল রুপি ব্যবহার করে লেনদেন করা যেতে পারে।

কি কি সুবিধা পাওয়া যাবে?

এই ই রুপির একাধিক সুবিধা আছে। আগামী দিনে ক্যাশের লেনদেনে অনেকটাই ভরসা কমে যাবে মানুষের। পকেটে সব সময় টাকা নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর ঝামেলা থাকবে না। বিদেশে টাকা পাঠানো আরো বেশি সহজ হয়ে উঠবে। সব থেকে বড় কথা হলো ইন্টারনেট ছাড়াই এটি ব্যবহার করতে পারবেন।

কি কি অসুবিধা আছে?

ই রুপি চালু হলে নগদের উপর কোন বিরাট প্রভাব পড়বে না তাই খুব একটা অসুবিধা হবে না আগামীদিনে। তবে অনেকের বক্তব্য, ই রুপির ওয়ালেটে কোন সুদের ব্যবস্থা না থাকায় একটি ডিসঅ্যাডভান্টেজ হতে চলেছে। যদিও রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া আগেই জানিয়ে দিয়েছেন, তেমনটা হলে নগদও এই রূপের ভারসাম্য নষ্ট হত এবং সাধারণ মানুষ ব্যাংকের নগদ তুলে এই রুপিতে বদলে ফেলায় বেশি আগ্রহ দেখাত।

দেশে এই ই রুপি কেন চালু করা হলো?

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া তরফ থেকে জানানো হয়েছে, ভারতীয় নোটের ডিজিটাল রুপি হল এই ই রুপি। সাধারণ মানুষকে নগদের বিকল্প অপশন দেওয়াই হল এই ই রুপির মূল উদ্দেশ্য। পাশাপাশি ভারতীয় রুপিকে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে ডিজিটাল রূপ দেওয়া হলো অন্যতম লক্ষ্য।