বাঁচবে গ্যাসের খরচ, বিনামূল্যে তিনবেলা তৈরি হবে খাবার, আজই কিনুন IOC-র সোলার স্টোভ

আজকাল প্রতিটি ক্ষেত্রেই পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে। বিভিন্ন ধরনের নতুন জিনিস তৈরি হছে, যার কারণে মানুষ অনেক সুবিধা পাওয়ার পাশাপাশি জিনিসগুলি মানুষ সস্তায় পাচ্ছেন। এই ধারাবাহিকতায়, বর্তমানে ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, মানুষের জন্য একটি ভিন্ন উপায়ে এবং একটি অত্যন্ত শ্রমসাধ্য উনান তৈরি করেছে। সবচেয়ে বড় কথা এই উনানে তিনবেলা খাবার রান্না করা হয় বিনামূল্যে।

আসুন জেনে নেওয়া যাক এই উনান সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য। দিন দিন মূল্যস্ফীতি যেভাবে বাড়ছে, তাতে সাধারণ মানুষের দুবেলা রুটি পাওয়াও কঠিন হয়ে পড়ছে। যে হারে প্রতিটি বাড়িতে ব্যবহৃত সিলিন্ডারের দাম বাড়ছে, তা সাধারণ মানুষের জন্য চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এটা ছাড়া আমরা একবেলা খাবারও পেতে পারি না।

এখন একটি সিলিন্ডারের দাম বেড়ে এক হাজার টাকা ছাড়িয়েছে। সাধারণ মানুষের এই সমস্যার সমাধান হিসেবে দেশের সবথেকে বড় তেল কোম্পানী ‘ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন’ ঘরের ভিতরে ব্যবহার করা সৌর উনান তৈরি করেছে। সৌর উনানের সাহায্যে আপনি বিনামূল্যে তিন বেলা খাবার রান্না করতে পারবেন। আজ আমরা ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশনের তৈরি এই বিশেষ যন্ত্রের কথা বলব। ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন, বিশ্বের কাছে একটি অনন্য যন্ত্র উপস্থাপন করেছে। এই সৌর উনান, সৌর শক্তির মাধ্যমে চলে, যা যেকোনো বাড়ির রান্নাঘরে রেখে ব্যবহার করা যেতে পারে। আসলে, এই সৌর উনান বাড়ির বাইরে বসানো প্যানেল থেকে সৌর শক্তি সঞ্চয় করে, যাতে আপনি সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তিন বেলা খাবার রান্না করতে পারেন এবং এর জন্য আপনাকে রোদেও বসতে হবে না।

এই সৌর উনান দিয়ে শুধু দিনের বেলা বা যতক্ষণ রোদ থাকে ততক্ষণই নয়, রাতেও ব্যবহার করা যায়। সিলিন্ডারের মতো এটি প্রতি মাসে কোনো খরচ বহন করে না, শুধুমাত্র একবার এটি কিনতে খরচ। পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী তাঁর সরকারি বাসভবনে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন, যেখানে এই উনান চালু করা হয়েছিল। এই সময় এই উনানের নাম দেওয়া হয় ‘সূর্য নূতন’। সংস্থার মতে, ‘সূর্য নূতন’ সহজেই প্রায় চারজনের জন্য তিন বেলা খাবার রান্না করা যেতে পারে। ‘সূর্য নূতন’ শুধুমাত্র একবার রিচার্জ করতে হবে এবং এটি সহজেই আপনার রান্নার গ্যাসের খরচ বাঁচাতে পারে। এই উনান চলবে জীবাশ্ম জ্বালানীর মাধ্যমে, তাই এটি চালাতে কাঠের প্রয়োজন নেই।

সূর্যের শক্তিশালী রশ্মির মাধ্যমে চলা এই উনানটি আপনার জন্য একটি নতুন অভিজ্ঞতা হবে এবং আপনার অর্থও সাশ্রয় হবে। এই ‘সূর্য নূতন’ উনানটি রোদে রাখার দরকার নেই, তবে এটি একটি তারের মাধ্যমে উপরের সোলার প্লেটের সাথে সংযুক্ত থাকে এবং চার্জ হয়ে যায়। সোলার প্লেট দ্বারা উৎপন্ন শক্তির কারণে, ‘সূর্য নূতন’ রান্নাঘরে সহজেই চলে। সোলার প্লেট প্রথমে একটি তাপীয় ব্যাটারিতে সৌর শক্তি সঞ্চয় করে, যা সূর্যাস্তের পরেও রাতের খাবার রান্না করতে পারে।

ইন্ডিয়ান অয়েল কর্পোরেশন দল, ফরিদাবাদে ‘সূর্য নূতন’ চালু করেছে। এখনো পর্যন্ত শুধু ‘সূর্য নূতনের’ মডেল এসেছে, যদিও এর বাণিজ্যিক মডেল এখনো আসেনি। কোম্পানীর মতে, ‘সূর্য নূতনের’ জীবনকাল ১০ বছর এবং এর দাম ১৮,০০০ থেকে ৩০,০০০ টাকার মধ্যে। সরকার এই প্রকল্পের প্রচারের জন্য ভর্তুকি দিতে চায়, যার ফলে এর দাম হবে ১০,০০০ থেকে ১২,০০০ টাকার মধ্যে৷ ‘সূর্য নূতনের’ মাধ্যমে অনেক টাকা বাঁচানো যায়।