QS Wrold Ranking তালিকায় ৫০ এর মধ্যে স্থান পেল খড়গপুর আইআইটি, তালিকাতে রয়েছে দেশের মোট ১২ টি কলেজের নাম

কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির র‌্যাঙ্কিং তালিকা প্রতিবছরের মতো এবছরও প্রকাশিত হয়েছে। এবছর ৪ মার্চ অর্থাৎ গতকালকেই এই তালিকা প্রকাশিত হয়েছে। বিশ্বের সেরা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের তালিকায় নিজের জায়গা করে নিল পশ্চিমবঙ্গের খড়গপুর আইআইটি। বিশ্বের ৫০টি সেরা ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের তালিকায় রয়েছে আরো দুটি ইউনিভার্সিটি আইআইটি মাদ্রাজ এবং আইআইটি বম্বে।

 

ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির র‌্যাঙ্কিং তালিকায় ১০০ টির মধ্যে নিজেদের ইউনিভার্সিটির স্থান পাওয়ার জন্য প্রতিযোগিতা চলতে থাকে। এই তালিকায় ঠাঁই পেলে কলেজের নামের সাথে মানও বাড়ে। প্রথম ৫০ এর তালিকায় নিজেদের ইনস্টিটিউটের নাম উঠে আসা মানেই ইনস্টিটিউটের পক্ষে ইতিবাচক ফল পাওয়া যায়।

 

ইউনিভার্সিটির পরিবেশ ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিষয় শিক্ষার মান শিক্ষক এবং ছাত্রীর মধ্যে সম্পর্ক গবেষণার বিষয় প্রভৃতিকে খুঁটিয়ে বিচার করে কিউএস ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির র‌্যাঙ্কিং তালিকা প্রকাশ করা হয়। এই বছর সমস্ত সাবজেক্ট সাবজেক্টের গবেষণার মান বিচারের নিরিখে এই র‌্যাঙ্কিং তালিকা প্রকাশ করা হয়।

QS Wrold Ranking

এই বছরে খড়গপুর আইআইটি-এর নাম ৪৪ নম্বরে রয়েছে। গত বছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে এই র‍্যাঙ্কিংয়ে IIT খড়গপুর ছিল ৪৭ তম স্থানে যা ২০২০ সালে আরও একধাপ ওপরে উঠে ৪৬তম স্থান হয়। আর এই বছরটায় দু ধাপ এগিয়ে ৪৪ জায়গা করে নেয় এই প্রতিষ্ঠানটি। খনিজ, পরিবেশ বিজ্ঞান, অর্থনীতি, পরিসংখ্যান ও গবেষণা সহ বিষয়গুলোর বিচার বিবেচনার দিক থেকে আইআইটি খড়গপুর দেশের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান দখল করেছে।

QS Wrold Ranking

প্রযুক্তি, কম্পিউটার বিজ্ঞান, নাগরিক ও কাঠামোগত, বৈদ্যুতিক ও বৈদ্যুতিন, যান্ত্রিক, বৈমানিক ও উৎপাদন, আর্থ ও সামুদ্রিক বিজ্ঞান, পদার্থ বিজ্ঞান এবং অ্যাকাউন্টিং এবং ফিনান্স সহ শাখাগুলিতে ভারতের শীর্ষে স্থানীয় পাঁচটি ইনস্টিটিউটের তালিকার মধ্যে অবস্থান করে আছে এই প্রতিষ্ঠানটি।