মোদীকে নিয়ে কুৎসিত মন্তব্য করায় আফ্রিদিকে ধুয়ে দিলেন গৌতম গম্ভীর..

মাঠের মধ্যে হোক বা বাইরে প্রায় সময় দুজনকে বাকযুদ্ধে জড়িয়ে পড়তে দেখা গেছে একাধিক বার। তাদের সম্পর্ক আর কখনোই ভালো হয়ে ওঠেনি। তবে এবার কিছুদিন আগে করোনা কবলিত পাক অধ্যুষিত কাশ্মীরে ত্রাণ দিতে গিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার শহিদ আফ্রিদি। যেখানে তাকে সেখানকার গ্রামবাসীদের উদ্দেশে কাশ্মীর ইস্যুতে কিছু কথা বলতে দেখতে পাওয়া যায় এই পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার কে। আর আফ্রিদির সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

যেখানে তাকে এই ভিডিওতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে নিয়ে কটাক্ষ করতে দেখতে পাওয়া যায়। আর এই ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োটিতে তাকে বলতে দেখা যাচ্ছে, মোদীর মস্তিষ্ক নাকি করোনার থেকেও ক্ষতিকারক! আর এরকম এক কুরুচিকর মন্তব্য করার পর পাক অলরাউন্ডার কে একহাত নিলেন প্রাক্তন ভারতীয় ওপেনার গৌতম গম্ভীর। যেখানে এই ভিডিওটিতে আফ্রিদিকে বলতে দেখা যায়, “আমি আপনাদের অসাধারণ গ্রামে এসে অত্যন্ত খুশি হয়েছি। অনেক দিন ধরেই ভাবছিলাম আসবো আমি এখানে। এই মুহূর্তে পৃথিবীর একটা ভয়ঙ্কর সংক্রামক রোগ হয়েছে।

কিন্তু তার চেয়ে বড় রোগ বাসা বেঁধেছে মোদীর মাথায়। নাহলে কেউ কাশ্মীরে সাত লক্ষ সেনা মোতায়েন করে! এই সংখ্যাটা পাকিস্তানের পুরো সেনাবাহিনীর সমান।” গম্ভীরের সঙ্গে আফ্রিদির মত বিরোধ এই নতুন নয়। আর এবার প্রধানমন্ত্রী মোদীকে নিয়ে করা মন্তব্যের প্রেক্ষিতে ফের তেলে-বেগুনে জ্বলে উঠলেন গম্ভীর। যেখানে গৌতম গম্ভীর এর পরিপ্রেক্ষিতে মন্তব্য করে জানান পাকিস্তানের কুড়ি কোটি মানুষকে পাহারা দিচ্ছে 7 লক্ষ সেনা, এমনটা বলেছে এক 16 বছর বয়সী মানুষ শাহিদ আফ্রিদি। তা সত্ত্বেও 70 বছর ধরে কাশ্মীর ভিক্ষে করে যাচ্ছে।

শুধু তাই নয় ইমরান, আফ্রিদির মতো জোকাররা ভারতের বিরুদ্ধে এবং প্রধানমন্ত্রী মোদাীর নামে বিষ ছড়িয়ে যাচ্ছে এমনকী পাকিস্তানের মানুষজনকে বোকা বানিয়ে যাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। তবে ওরা কাশ্মীর পাবে না। এর আগে বাংলাদেশের যুদ্ধের কথা মনে আছে তো!  প্রসঙ্গত এর আগেও একবার সম্প্রতি আফ্রিদি তাঁর আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’-এ গৌতম গম্ভীরকে অহংকারী বলে বর্ণনা করেন এবং আরও বলেছিলেন যে, গৌতম গম্ভীরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে তেমন কোনো উল্লেখযোগ্য বড় রেকর্ড নেই। এমন ঘটনায় চুপ থাকেননি গৌতম গম্ভীর। তিনিও আফ্রিদের মন্তব্যের পাল্টা জবাব দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আফ্রিদি তুমি একজন উন্মাদ। যাইহোক, আমরা মেডিক্যালের জন্য পাকিস্তানকে এখনও ভিসা প্রদান করছি। আমি নিজে তোমায় সাইকাট্রিস্টের (মনোবিদ) কাছে নিয়ে যাবো।

Related Articles

Close