WhatsApp-এ বাজার পরিষেবা শুরু করে দিল Jio, এবার থেকে অনলাইনের মাধ্যমে করে নিতে পারবেন প্রয়োজনীয় সামগ্রীর বাজার

সম্প্রতি রিলায়েন্স জিওর সাথে ফেসবুক হাত মিলিয়েছে। এবং এটাও জানি যে কয়েক মাস আগে ফেসবুকের অধীনে চলে আসে মেসেজিং প্লাটফর্ম অ্যাপ ‘হোয়াটস অ্যাপ’ । এবার হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক এবং জিও এই তিনটি একত্রীকরণ হয়েছে। সম্প্রতি প্রথমে পরিষেবা চালু করা হয়েছে মহারাষ্ট্রের নবি মুম্বাই, থানে ও কল্যাণে। আগামী দিনে ধীরে ধীরে দেশের সব জায়গায় এই পরিষেবা ছড়িয়ে যাবে বলে জানানো হয়েছে। এই তিনের একত্রীকরণের ফলে সাধারণ মানুষেরা কী কী সুবিধা পেতে চলেছে সেই সম্পর্কে আলোচনা করা হলো নিচে –

দেশের বেশিরভাগ মানুষ এই হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন বর্তমান দিনে।এখন জিওমার্ট ও হোয়াটসঅ্যাপ একত্রিত হয়ে সমস্ত ছোট ব্যবসায়ীদের জন্য একটি নতুন পথ খুলে দেবে। দেশের সমস্ত ছোট ছোট স্টোর গুলিকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে একত্রিত করা হবে। এরপরে মুদির দোকানে হোক বা ছোট কোন স্টেরের জিনিস আপনি মোবাইলের মাধ্যমে অর্ডার দিলেই পেয়ে যাবেন ডেলিভারি। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে আপনি যে কোন জিনিসের অর্ডার দিতে পারেন।এবং অর্ডারের পেমেন্ট আপনাকে হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে করতে পারবেন।

কারণ এমন অনেক মানুষ আছেন যারা পেটিএম ব্যবহারে অভ্যস্ত নন তাদের জন্যই হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে পেমেন্ট দেওয়ার সুবিধা করা হয়েছে। এখন সবারই মনে প্রশ্ন জাগতে পারে এতে হোয়াটসঅ্যাপ লাভবান হবে রিলায়েন্সের কী সুবিধা? পরিসংখ্যান বলছে আমাদের দেশে খুব কম করে 40 কোটির বেশি মানুষ হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার। এই বিপুল সংখ্যক মানুষের কাছে রিলায়েন্সের পৌঁছে যাওয়ায় মূল উদ্দেশ্য। অনলাইন শপিং হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে কীভাবে কাজ করবে সেই সম্পর্কে জানানো যাক – এর জন্য একটি আলাদা হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার দেওয়া হবে।

8850008000 -এই নম্বরটি আপনার মোবাইলে সেভ করতে হবে। জিওর দেওয়ায় মোবাইল নম্বরটি সেভ করার পরে গ্রাহকদেরকে একটি লিঙ্ক পাঠানো হবে। এবং এই লিংকটির ভ্যালিডিটি থাকবে মাত্র 30 মিনিট। লিংকটি আসার 30 মিনিটের মধ্যেই আপনাকে এই লিংকে ক্লিক করতে হবে। এবং এই লিংকে ক্লিক করার সাথে সাথে নতুন একটি ওয়েব পেজ খুলে যাবে আপনার স্মার্টফোনে। এই ওয়েবপেজে গ্রাহকের নাম, ঠিকানা, ফোন নাম্বার দিতে হবে। এরপর ওই পেজে নানান ধরনের সামগ্রিক ক্যাটালগ দেওয়া থাকবে এবং তার সাথে দাম উল্লেখ করা থাকবে ওখানে। এরপর আপনার যেটা প্রয়োজনীয় সেগুলি অর্ডার দিতে পারবেন। ব্যাস এর পরেই আপনার অর্ডার দেওয়া সামগ্রী চলে আসবে আপনার বাড়িতে।