Categories
নতুন খবর

জিওর তরফ থেকে নিয়ে আসা হল নতুন “ওয়ার্ক ফ্রম হোম” অফার, এক রিচার্জেই 1 বছরের সুবিধা সাথে 33 শতাংশ বেশি সুবিধা..

প্রতিযোগিতা কতটা বেড়েছে তা আমরা সবাই খুব ভালোভাবেই বুঝতে পারছি। টেলিকম কোম্পানি গুলি ভারতের মাটিতে একে অপরকে একচুল জায়গাও ছাড়তে নারাজ। তবে দেশের অন্যান্য টেলিকম সেক্টরের তুলনায় জিও যে এগিয়ে রয়েছে তা বলা বাঞ্ছনীয়।এই টেলিকম ময়দানের হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে এয়ারটেল ভোডাফোন কে পিছনে ফেলে এগিয়ে রয়েছে জিও। এমন কী গত বছর 2019 এ অক্টোবর মাসে প্রায় 91 লাখেরও বেশি নতুন সাবস্ক্রাইবার যুক্ত হয়েছে জিওর নেটওয়ার্কে।

তাছাড়া টেলিকম সেক্টরে জিও যবে থেকে আত্মপ্রকাশ করেছে তখন থেকে টেলিকম দুনিয়ায় এয়ারটেল ভোডাফোন আইডিয়াকে কড়া টক্কর দিচ্ছে। জিও আসার পর থেকে টেলিকম কোম্পানি গুলির মধ্যে প্রতিযোগিতা আগের তুলনায় এখন অনেক গুণ বেড়ে গেছে, তা সে রিচার্জ প্ল্যানের দিক থেকে হোক কিংবা নতুন নতুন অফার এর দিক থেকেই হোক। তবে যেমনটা আমরা এখন দেখতে পাচ্ছি গোটা বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জেরে জারি রয়েছে লকডাউন, যার জেরে এক প্রকার ঘরবন্দি হয়ে রয়েছে গোটা দেশের মানুষ। আর ভারতেও জারি রয়েছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ডাকে তৃতীয় দফার লকডাউন যেটি আগামী মে মাসের 17 তারিখ পর্যন্ত জারি থাকবে।তাই এরকম এক পরিস্থিতিতে সময় কাটাতে অত্যাধিক মানুষ সময় দিচ্ছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়তে। কেউ কেউ আবার সোশ্যাল মিডিয়াতে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় কাটাচ্ছেন, আবার কেউ কেউ ঘর থেকেই চালিয়ে যাচ্ছে অফিসের যাবতীয় কাজ আর এরকম এক পরিস্থিতিতে ব্যবহৃত হচ্ছে অত্যাধিক ডাটাও। তবে আজকের এই খবরটি জিও গ্রাহকদের জন্য কিছুটা হলেও সুখবর হতে পারে কারণ জিও তরফ থেকে এই লকডাউনের মধ্যে আনা হলো চারটি নতুন প্ল্যান যেগুলি নাম রাখা হয়েছে ওয়াক ফ্রম হোম।

মে মাসের 9 তারিখ থেকে সকল জিও গ্রাহকেরা এই প্ল্যান গুলি রিচার্জ করে নিতে পারবেন নিজেদের নম্বরে। জিওর তরফ থেকে যে নতুন প্ল্যানগুলি আনা হয়েছে সেগুলোর দাম রাখা হয়েছে যথাক্রমে, 2399 টাকা ,151টাকা , 201টাকা ও 251 টাকা।

2399 টাকার প্ল্যান- এই প্ল্যানের দরুন আপনি পেয়ে যাবেন প্রতিদিন 2 জিবি করে ডাটা ব্যবহার করার সুবিধা, এরই সাথে পেয়ে যাবেন জিও থেকে জিও নাম্বারে আনলিমিটেড কলিং, সাথে থাকছে জিও থেকে অন্যান্য নেটওয়ার্কে 12,000 মিনিট কল করার সুবিধা। এর পাশাপাশি এই‌ প্ল্যানের দরুন আপনি পেয়ে যাবেন প্রতিদিন 100 টি করে এসএমএস ব্যবহার করার সুযোগ। আর এক্ষেত্রে প্ল্যানটির বৈধতা থাকছে 365 দিন।
251 টাকার প্ল্যান–এর আগে জিওর তরফ থেকে এই প্ল্যানের দরুন আগে দেওয়া হতো প্রতিদিন করে দু জিবি করে ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ, যার বৈধতা থাকতো 51 দিনের জন্য এবং এই প্ল্যানটির নাম ছিল ক্রিকেট প্যাক। তবে বর্তমানে এই প্ল্যানটিকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে এবং তার পরিবর্তে আনা হয়েছে নতুন প্ল্যান এখন এই পরিমাণে টাকাটি রিচার্জ করলে আপনি পাবেন মোট 50 জিবি ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ। এক্ষেত্রে ডেইলি ডাটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে থাকছে না কোন প্রকার লিমিট।

201 টাকার প্ল্যান–এই প্লানের দরুন আপনি পেয়ে যাবেন মোট 40 জিবি ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ। আর এক্ষেত্রেও প্রতিদিন ডাটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে থাকছে না কোন প্রকার লিমিট।

151 টাকার প্ল্যান–জিও তরফ থেকে নিয়ে আসা 151 টাকার প্ল্যানের দরুন আপনি পেয়ে যাবেন মোট 30 জিবি ডাটা ব্যবহার করার সুযোগ আর এক্ষেত্রেও প্রতিদিন ডাটা ব্যবহার করার ক্ষেত্রে থাকছে না কোন প্রকার লিমিট।

এক্ষেত্রে 251 টাকা 201 টাকা ও 151 টাকার যে প্ল্যান গুলি রয়েছে সেগুলির জন্য আলাদা করে প্রয়োজন পড়বে আপনার নাম্বারে অন্য কোন প্যাক রিচার্জ থাকার, অর্থাৎ এই প্ল্যান গুলি এক প্রকার অ্যাড অন প্যাক হিসাবে কাজ করবে‌ আপনার নাম্বারে।