দেশনতুন খবরবিশেষভারতীয় সেনা

ভারতীয় এয়ারফোর্সকে বিশ্বের সবথেকে শ্রেষ্ঠ হেলমেট দিতে চলেছে ইজরায়েল। যা শুনে ঘুম উড়লো চীন,পাকিস্তান সহ ভারতের অন্যান্য শত্রু দেশ গুলির।

কিছুদিন আগে পাকিস্তানের বালাকোটের হামলায় ইজরায়েলি  বোমা যে চমক দেখিয়েছিল তাতে বোঝা যাচ্ছিল ইজরাইলের সামরিক শক্তি কতটা উন্নত।আর বর্তমানে ইজরায়ল ভারতের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পাকিস্তানের ওপর হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে। ভারতের পাশে যে 3 টি শক্তিশালী দেশ সমর্থনে দাঁড়িয়ে রয়েছে তাদের মধ্যে অন্যতম একটি হল ইজরায়ল। ইতিমধ্যে ইজরায়ল ভারতকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে যুদ্ধের সময় সামরিক শক্তির দিক দিয়ে ভারতকে সাহায্য করবে তারা। মোদি সরকারের ক্ষমতায় আসার পর থেকেই ইসরাইলের সাথে ভারতের সম্পর্ক অনেক দৃঢ় হয়েছে। ভারতের সঙ্গে ইসরাইলের সম্পর্ক ভালো হওয়ার দরুন ইজরায়েল তার সমস্ত আধুনিক প্রযুক্তি ও তথ্য ভারতের সঙ্গে শেয়ার করছে।

আসলে ইজরায়লের সামরিক শক্তিতে হাতিয়ার করে বিশ্বে নিজেদের স্থান প্রতিষ্ঠা করা ও শক্তিধর দেশের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক স্থাপন করায় প্রধান উদ্দেশ্য বলে মনে করা হয়।যদিও ইজরায়ল তাঁদের নিজেদের গোপন তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পর্কে কাউকে সেরকম কিছু প্রকাশ করে না বিশেষ করে পাকিস্তানের মতো দেশকে। তবে ইজরায়েল ও ভারতের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক আরও উন্নত হতে চলেছে। এবার ইজরায়ল ভারতের সাথে চুক্তি বদ্ধ করতে চলেছে টেকনিক শেয়ার করার জন্য। বালাকোটের জঙ্গি নিধন এ ভারতীয় বায়ুসেনার সাফল্যে গর্বিত হয়েছে ইজরায়েল। তাই ভারতীয় বায়ুসেনার জন্য তৈরি করতে চলেছে এক বিশেষ হেলমেট।ভারতীয় বায়ুসেনা দের দৃষ্টি আরো প্রখর গতির করার জন্য ওই বিশেষ হেলমেট টিতে ডিস্প্লে পয়েন্টিং সিস্টেম ও নেটওয়ার্কিং সিস্টেম তৈরি করা হবে বলে জানানো হয়েছে যা ভারতীয় সেনাদের জন্য বিশেষভাবে উপকারী হবে। যার ফলে শত্রু দেশ গুলির সাথে লড়াইয়ে ভারতীয় বায়ুসেনা আরো বেশি ক্ষমতা পাবে।

এর আগে ভারত পুরনো জেট ফাইটার ও সামরিক অস্ত্র নিয়ে যুদ্ধ করতো কিন্তু বালাকোর্টে হামলায় মিগ -21 যেভাবে পাকিস্তানি আধুনিক যুদ্ধবিমান এফ-সিক্সটিন কে গুড়িয়ে দিয়েছে তাতে বেশ টনক নড়েছে ভারত সরকারের। তাই এবার ভারত সরকার বিদেশ থেকে দামি বিমান কিনে আনার পাশাপাশি অস্ত্র ভান্ডার কে আরো উন্নত করার সংকল্প নিয়েছে।

এমনকি এর দরুন রাশিয়ার সাহায্য নিয়ে দেশের মাটি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে অ্যাসল্ট পাওয়ার রাইফেল, বাড়ানো হচ্ছে সুপারসনিক রাইফেল এর রেঞ্জ। একই সঙ্গে ভারতে আনা হচ্ছে AK-230। আর এবার তৈরি করা হচ্ছে ভারতীয় বায়ুসেনা দের জন্য এক উন্নত মানের হেলমেট। এতদিন পর্যন্ত ভারত পুরনো সামরিক অস্ত্র নিয়ে লড়াই করার প্রশ্ন উঠেছিল। কিন্তু তারপরও এ পুরনো সামরিক অস্ত্র নিয়ে গুলি নিয়ে যেভাবে ভারতের সেনাবাহিনীর সফলতা লাভ করেছে তাতে প্রশংসনীয় হয়েছে ভারতসহ অন্যান্য দেশ গুলিও। এমনকি বিশ্বের অন্যান্য শক্তিধর দেশগুলো ভারতকে সমর্থন করছে ও পাশে দাঁড়িয়েছে। যার দরুন এবার ইজরায়ল সামরিক দিক থেকে ভারতকে সাহায্য করতে চলেছে। তবে এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর থেকে পাকিস্তান ও চীনসহ ভারতের অন্যান্য শত্রু দেশ গুলির রাতের ঘুম উড়ে গেছে।

কারণ তারা এটা স্পষ্ট বুঝতে পেরেছে ভারতের সাথে এরকম পুরনো অস্ত্রশস্ত্রে পারা সম্ভব হয়ে উঠছে না আর যদি তাদের কাছে আধুনিক অস্ত্র এসে যায় তাহলে তারা ভারতীয় সেনাবাহিনী দের কাছে কোন মতে পাত্তা পাবেনা। যার দরুন তাদের কাছে এ বিষয়টি একটি চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। তাই তাদের রাতের ঘুম উড়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক।

Related Articles

Back to top button