৩৩ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ইতি টানতে পারেন বিরাট কোহলি, আফ্রিকা সফরের পর নিতে পারেন অবসর

বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকা ও ভারত তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজের চূড়ান্ত এবং নির্ণায়ক ম্যাচে মুখোমুখি হতে চলেছে। তিনটি ম্যাচেই প্রায় একই প্রথম একাদশ ধরে রেখেছে ভারতীয় দল। দলে রয়েছেন এমন অনেক অভিজ্ঞ ক্রিকেটার যাদের পুরো সফর মাঠে নামতে হয় নি। সফরে এমন একজন ক্রিকেটার এমনও রয়েছেন যিনি সুযোগ পাবেন বলে ভাবা হলেও তাঁর নাম বিবেচনা করেনি অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এমন পরিস্থিতিতে এই সিরিজের পর অবসর ঘোষণা করতে পারেন তিনি।

কথা বলছি ইশান্তের। চলতি মাসে মোহাম্মদ সিরাজ চোটের কারণে মাঠে খেলতে পারেননি। সিরাজের জায়গায় সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে উমেশ যাদবকে। একইসঙ্গে টানা চারটি টেস্ট দলের বাইরে বসিয়ে দেওয়া হল ইশান্ত শর্মাকে। বলাই বাহুল্য ক্রিকেটারের ক্যারিয়ার ধীরে ধীরে শেষ হয়ে যাচ্ছে।ইশান্ত অধিনায়ক বিরাট কোহলির যে ফাস্ট চয়েজ পেশার নয় তা বলাই বাহুল্য। কোন প্রধান বোলার যদি কোনভাবে মাঠে নামতে পারেন তবেই তাঁকে সুযোগ করে দেওয়া যেতে পারে।

বিরাট কোহলি এখন যে সমস্ত ক্রিকেটে সবথেকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন তারা হলেন যশপ্রীত বুমরা, মোহাম্মদ সামি এবং মোহাম্মদ সিরাজ। একদিকে যেমন বুমরা এবং শামির ব্যাটিং অসামান্য তেমন অন্যদিকে সিরাজ গত এক বছরে দলের ফাস্ট বোলিং বাহিনীর অপরিহার্য অঙ্গ হয়ে উঠেছে। এনাদের মধ্যে যদি কারোর অনুপস্থিতি থাকে তাহলে উমেশ যাদবকে চতুর্থ বোলার হিসেবে সুযোগ দেওয়া হয়।

ইশান্ত শর্মার আগের থেকে ভালো নেই। ফাস্ট বোলারদের অফ ফর্মের জন্য বয়স অন্যতম একটি কারণ। অন্যদিকে অন্যান্য ক্রিকেটাররা অনেক বেশি তরুণ ইশান্ত শর্মার থেকে। ফলে ভারতীয় দলে এমন অনেক ক্রিকেটার রয়েছেন যারা অনায়াসে ইশান্ত শর্মার জায়গা কেড়ে নিতে পারেন। প্রসঙ্গত,সিরিজের তৃতীয় ম্যাচে প্রথমদিনের পর ভারতের ২২৩ রানের জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা ১৭ রানে ১ উইকেট হারিয়েছিল। এই মুহূর্তে তাদের স্কোর ২ উইকেট হারিয়ে ৪৫। ওপেনার দুজন-কে ফিরিয়ে দিয়েছেন যশপ্রীত বুমরা।